ভাইরাল

এবারে ভুবন বাদ্যকরের গাওয়া কাঁচা বাদাম গান গেয়ে বাদাম বিক্রি করে ভাইরাল সিউড়ির বাসিন্দা, জমজমাট ব্যবসা করছেন উত্তরপ্রদেশের বাদাম বিক্রেতারা

আজ থেকে প্রায় এক বছর আগে রাস্তায় রাস্তায় বাদাম বিক্রি করতে করতে তার গান ভাইরাল হয়ে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। নিমেষেই দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ছড়িয়ে পড়েছিলেন বীরভূম জেলার ভুবন বাদ্যকর। এরপর তো সোশ্যাল মিডিয়ার ক্ষমতা আমরা প্রত্যেকেই দেখেছি শুধুমাত্র দেশ নয় বিদেশেও ভুবন বাদ্যকরের গান পৌঁছে গিয়েছিল। এরপর সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে রাতারাতি আসে জনপ্রিয়তা।

তারপর তাকে আর ঘুরে তাকাতে হয়নি। বিভিন্ন ইউটিউব চ্যানেলের তরফ থেকে তিনি পেয়েছেন অফার। তাদের সাথে মিউজিক ভিডিওতে গান করেছেন। এছাড়াও বিভিন্ন স্টেজ শোতে ডাক পেয়েছেন ভুবন বাবু। তার কাঁচা বাদামের গানের তালে নেচে উঠেছিল গোটা দেশ। এবারে এই কাঁচা বাদাম গান গেয়েই উত্তরপ্রদেশে নিজের বাদামের ব্যবসা করছেন এক ব্যাক্তি।

উত্তরপ্রদেশে সারা বছর বিভিন্ন মানুষজন বাদাম বিক্রি করতে আসেন। সেরকমই একজন হলেন সিউড়ির চাঁদমারি মাঠের কাছে সিউড়ি বোলপুর রাস্তায় আজম খান। তিনি বর্তমানে ভুবন বাবুর এই জনপ্রিয় গান গেয়ে বাদাম বিক্রি করছেন। আজম খান জানিয়েছেন রাজস্থান থেকে কাঁচা বাদাম আনার পর এখানে তা ভেজে বিক্রি করা হয়।

তারা ২০ টাকায় ১০০ গ্রাম ভাজা বাদাম বিক্রি করেন। তবে যদি কেউ বেশি অর্থাৎ কিলো হিসাবে বাদাম নেন তাহলে তাদের তারা ১৮০ থেকে ১৯০ টাকা দরে দেন। সিউড়ি শহরে বাদাম বিক্রি করে তারা প্রতি দিন ৫০০ টাকা থেকে ৬০০ টাকা রোজগার করে থাকেন।

উল্লেখ্য গ্রামে গ্রামে ঘুরে ঘুরে কাঁচা বাদাম বিক্রি করার জেরেই সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতের ভাইরাল হয়ে পড়েছিলেন ভুবন বাবু। আজ তিনি একজন সাধারণ বাদাম বিক্রেতা থেকে সেলিব্রিটিতে পরিণত হয়েছেন। নিজের বাড়ি গাড়ি সবকিছুই কিনেছেন। তাই ভুবনবাবুর দেখানো রাস্তাতেই হাঁটতে চান আজাম খান।

Back to top button