ভাইরাল

সাধারণ মানুষ এতটাকা সারাজীবনে রোজগার করতে পারে না! ২৬ লক্ষ টাকা দিয়ে ঝাঁ চকচকে গাড়ি কিনলেন হিরো আলম

সদ্যই স্ত্রী নুসরাতের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়েছে বাংলাদেশী তারকা হিরো আলমের। আইনিভাবে এখনো ছাড়াছাড়ি না হলেও দুজনেই যে আলাদা থাকছেন এসেই কথা সকলেই জানেন। তবে বিচ্ছেদ হবার পরেই নতুন সদস্যকে বাড়িতে স্বাগত জানালেন হিরো আলোম। সাদা রংয়ের ঝাঁ-চকচকে সুন্দর একটি চারচাকা গাড়ি কিনলেন বাংলাদেশি ইউটিউবার। সাদা রঙের ২০১৮ মডেলের একটি টয়োটা ফিল্ডার গাড়ি কিনেছেন তিনি। ফেসবুক লাইভে এসে নিজেই সেই গাড়ি কেনার সুখবর দিয়েছেন প্রত্যেককে লাইভে এসে তিনি বলেন “আমার স্বপ্ন ছিল হিরো হব। আল্লাহ সেটা পূরণ করেছেন। সবসময় চিন্তা করি মানুষের পাশে দাঁড়াব, আল্লাহ সেটাও পূরণ করেছে। আমার অনেক বিপদ ছিল, আল্লাহ সেটাও দূর করেন।”

হিরো আলম আরো জানান যে তার ইচ্ছে ছিল সৎ পথে রোজগার করে নিজের সব স্বপ্ন পূরণ করার। আর তার মধ্যে একটি স্বপ্ন ছিল তার একদিন চারচাকা গাড়ি হবে। তবে আজ সেই স্বপ্ন পূরণ করেছেন তিনি। সৎ পথে রোজগার করে নিজের স্বপ্ন পূরণ করা খুব কঠিন। কিন্তু যখন রোজগার করে নিজের টাকায় সেই স্বপ্ন পূরণ করা যায় তার আনন্দটাই আলাদা রকম হয়। বিভিন্ন জায়গায় কাজ করে একটু একটু করে টাকা জমিয়ে গাড়ি কিনেছেন হিরো আলম। বাংলাদেশি মুদ্রায় তার গাড়িটি মোট গ্রাম ২৬ লক্ষ টাকা। এখন তিনি এই গাড়িটি করে সারা দেশে ঘুরে বেড়াবেন।

হিরো আলম জানিয়েছেন প্রতিমাসেই তারায় সমান হয় না। কোন মাসে তিন লক্ষ টাকা আয় হলে পরের মাসে ৫০ হাজার টাকা আয় হয়। আর একটু একটু করে এই টাকা জমিয়ে নিজের স্বপ্ন পূরণ করেছেন হিরো আলম। তার এই আয়ের বেশির ভাগটাই আসে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে। তবে নিজের বেশিরভাগ টাকা চাই তিনি সমাজসেবায় কাজে লাগান।

কিছুদিন আগেই নিজের প্রথম স্ত্রী নুসরাত এর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়েছে হিরো আলমের। এমনকি বিভিন্ন বাংলাদেশের খবর সংস্থা নাকি তার বিয়ে নিয়ে অনেক ভুয়ো গল্প রটিয়ে ছিল। হিরো আলমের দাবি সংসার করতে গেলে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে হামেশাই গন্ডগোল লেগে থাকে। আর সেটা সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত ব্যাপার। কিন্তু বাংলাদেশের এক সাংবাদিক সেটাকেই অস্ত্র করে হিরো আলমের নামে চারিদিকে কুৎসা রটিয়ে বেড়িয়েছেন। তার নামে মিথ্যা অপবাদ দিয়েছেন।

Back to top button