ভাইরাল

আফগানিস্তানের প্রাক্তন মন্ত্রী বর্তমানে জার্মানির একজন পিজ্জা ডেলিভারি বয়, বর্তমানে ভাইরাল সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরপাক খাচ্ছে

কথায় আছে সময় সব সময় সবার এক যায় না, একটা সময়ে খুব ভালো কাটে তার পরবর্তী সময়টা হয়তো খারাপ কিছু অপেক্ষা করে আবার খারাপ রাত গুলি কেটে গিয়ে সূচনা হয় এক নতুন ভোরের। গল্পটা আফগানিস্তানের একজন প্রাক্তন মন্ত্রীর। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যোগাযোগ এবং ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ারিং এর ওপর স্নাতকোত্তর পাস করেছেন তিনি। যোগাযোগের উপরে কুড়ি বছরের বেশি সময় ধরে কাজ করেছেন তিনি। তবে এক মর্মান্তিক ঘটনার কারণে আজ বর্তমান সময়ে তিনি একজন পিজ্জা ডেলিভারি বয়ের কাজ করেন জার্মানিতে। সেখানে একটি লাইপজিগে আশ্রয় নিয়েছেন তিনি।

আফগান এর টেলিকম এবং আইটি ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী এবং প্রযুক্তি উপমন্ত্রী সৈয়দ আহমেদ শাহ সাদাত তার ফেসবুক একাউন্টে এই বিষয়টি পোস্ট করেন। এছাড়াও সেখানকার সাংবাদিকদের ক্যামেরায় ধরা পড়েছেন তিনি, পিঠে একটি মস্ত বড় ব্যাগ এবং বাইক নিয়ে রাস্তায় বেরিয়ে পড়েছেন পিজ্জা ডেলিভারির কাজের। সাংবাদিকদের ক্যামেরায় ধরা পড়ে তার এই দৃশ্য বর্তমানে সেই ছবি এখন সোশ্যাল মিডিয়ার আনাচে কানাচে ঘুরে বেড়াচ্ছে।

২০১৮ সালের আফগান প্রেসিডেন্ট আশরা ঘানির মন্ত্রিসভায় যোগদান করেছিলেন। গত বছর এই সেই পদত্যাগ করে জার্মানিতে চলে আসেন প্রাক্তন মন্ত্রী। সূত্রের খবর অনুযায়ী তার আর্থিক অবস্থার অবনতির হয়েছিল এবং শেষের দিকে টাকা-পয়সা হাতে না থাকায় তিনি জার্মানিতে পিজ্জা ডেলিভারির কাজ বেছে নেন। একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন এশিয়া এবং আরবের বড় বড় ব্যক্তিদের জীবন যাপন পরিবর্তনের দৃষ্টিভঙ্গি হিসেবে তার এই গল্প কাজে লাগবে।

এর আগে তিনি আরামকো এবং সৌদি টেলিকম কোম্পানির জন্য সৌদি আরব সহ মোট ১৩টি দেশে ২০ টিরও বেশি সংস্থার ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে কাজ করেছেন। এছাড়াও তিনি লন্ডনে টেলিকম CEO হিসেবে কাজ করেছেন। ২০০৫ সাল থেকে শুরু করে ২০১৩ সাল পর্যন্ত তিনি আফগান মন্ত্রিসভায় যোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেছিলেন।

আফগানিস্তানের বর্তমান অবস্থা দেখে প্রাক্তন মন্ত্রী জানান তিনি এই ধরনের ঘটনা আশা করেননি তিনি কখনোই ভাবতে পারিনি সেই দেশের সরকারের এত তাড়াতাড়ি পতন ঘটবে।

Back to top button