ভাইরাল

‘মীরাক্কেলের কৌতুক শিল্পী আবু হেনা রনির পুড়ে যাওয়ার পোস্টে কেন হাসির ইমোজি দিয়েছেন শ্রীলেখা?’শ্রীলেখার পোস্ট দেখে চটেছেন নেটিজেনদের একাংশ!

জি বাংলার এক সময়কার জনপ্রিয় কৌতুক রিয়েলিটি শো হল মীরাক্কেল। মীরের সঞ্চালনা ছাড়াও এই শো এর মধ্যে সবথেকে আকর্ষণীয় জিনিসটি ছিল এই শো তে অংশগ্রহণকারী সকল প্রতিযোগী। তারা এমন কৌতুকপূর্ণ কথাবার্তা এবং আচরণ করতেন যে মানুষ আসতে বাধ্য হতেন। মিরাক্কেল আক্কেল চ্যালেঞ্জার সিজন ৬ এ বিজয়ী হয়েছিলেন বাংলাদেশের কৌতুক শিল্পী আবু হেনা রনি। এই অনুষ্ঠানে বিজয়ের পর থেকে তার জনপ্রিয়তা স্বাভাবিকভাবেই দুই দেশেই বেড়ে গিয়েছিলো।

জনপ্রিয় এই কৌতুক শিল্পী গতকাল বাংলাদেশের একটি অনুষ্ঠানে আহত হন। গতকাল বাংলাদেশের গাজীপুর মহানগর পুলিশ প্রশাসনের চার বছর পূর্তি উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠান আয়োজিত করা হয়েছিল। এই অনুষ্ঠানেই গ্যাস বেলুন ফেটে একটি বিস্ফোরণ ঘটে আর সেই বিস্ফোরণে আবু হেনা রনি সহ আরো চারজন আহত হন।

এবার হাসপাতালে তাদের ভর্তি করা হয়। আবু হেনা রনিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসকের তরফ থেকে বলা হয় যে তার শরীরের ২৫ শতাংশ পুড়ে গেছে। তার শ্বাসনালী ও ভয়ংকর ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, হাসপাতালে বার্ন ওয়ার্ডের চিকিৎসকদের তরফ থেকে এও জানানো হয়েছে যে, আপাতত দুদিন না গেলে কিছুই বলা যাবে না।

স্বাভাবিক ভাবেই জনপ্রিয় কৌতুক শিল্পীর এই ঘটনার পরে ভারতের একাধিক মানুষ ওই শিল্পীর প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। মীরাক্কেলের বিচারক হিসেবে পরিচিত অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র‌ও কৌতুকশিল্পী আবু হেনা রনির বিষয়ে পোস্ট করেন। নিজের ফেসবুক পোস্টে অভিনেত্রী লেখেন যে, তিনি আবু হেনা রনির সুস্থতা কামনা করছেন।

অভিনেত্রীর কথায়, “আবু হেনা রনি তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ওঠ বাবু’-এখন এই পোস্টটি করার সময় ব্যাকগ্রাউন্ড এর ডিসপ্লেতে তিনি হাসির ইমোজি দিয়েছিলেন। এটাতে অনেক মানুষ‌ই চটেছেন। একজন যেমন লিখেছেন যে, এমন একটা পেন ফুল নিউজ নিয়ে দেওয়া পোস্ট এর ব্যাকগ্রাউন্ড এর ডিসপ্লেতে হাসির ইমোজি কেন?

শ্রীলেখা যদিও এর কোন উত্তর করেন নি তবে নেটিজেনদের অধিকাংশের বক্তব্য হলো , যেহেতু মীরাক্কেলের প্রতিযোগী ছিলেন আবু হেনা রনি সেই কারণেই তিনি হাসির ইমোজি দিয়েছেন মীরাক্কেল টা বোঝানোর জন্য।

Back to top button