ভাইরাল

রোদ্দুর রায়ের পাল্লায় পড়ে কাঁদো কাঁদো অবস্থা জেলবন্দি আসামীদের! ‘মাঝরাতে ঘুম থেকে তুলে মোক্সাবাদ, গান আর বক্তৃতা শোনান রোদ্দুর’! দাগী আসামীরাও রোদ্দুরের হাত থেকে বাঁচবার উপায় খুঁজছেন

জনপ্রিয় ইউটিউবার রোদ্দুর রায় যিনি তার ভিডিওর মধ্যে প্রায়ই চাঁচাছোলা এবং অশ্লীল ভাষা প্রয়োগ করে থাকেন, তাকে নিয়ে রীতিমতো অতিষ্ঠ হয়ে গিয়েছেন জেলের তোলাবাজ আসামি থেকে শুরু করে দোর্দণ্ড প্রতাপ গুন্ডারাও। শোনা যাচ্ছে জেলবন্দি সঙ্গীদের প্রতি মাঝরাত্রে ঘুম থেকে তুলে দেন তিনি এবং তারপর নিজের গানের আসর শুরু করেন। দোর্দণ্ড প্রতাপ আসামি যাদেরকে সবাই ভয় পায় তারা এখন রোদ্দুর রায়কে ভয় পাচ্ছেন এবং তার গানের গুঁতো ও মোক্সাবাদের থেকে বাঁচবার চেষ্টা করছেন।

রাতের খাবার খেয়ে দেয়ে জেলবন্দি আসামিরা যেই একটু ঘুমিয়েছেন অমনি রোদ্দুর রায় হাজির হয়ে যান, বলতে শুরু করেন “রাত হয়েছে এবার ঘুম থেকে উঠে পড়ো ভাই। সবাই ওঠো। রাতে কেউ ঘুমায় নাকি? চলো তোমাদের গান শোনায়!” এরপর সারারাত জুড়ে চলে তার মোক্সাবাদ, গান আর বক্তৃতা। কসবার স্বঘোষিত ডন সোনা পাপ্পু জেলের সাজা কাটাতে এসে রোদ্দুর রায়ের পাল্লায় পড়ে রীতিমতো গলদঘর্ম অবস্থা হয়েছে তার। তার রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছেন রোদ্দুর রায়।

জেলের পুলিশের সাথে এখনো পর্যন্ত কোনো খারাপ ব্যবহার বা গালিগালাজ করেন নি রোদ্দুর! তবে জেলের অন্যান্য বন্দিরা তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ! বিশেষ করে দক্ষিণ ও পূর্ব কলকাতার ত্রাস সোনা পাপ্পু ও তার দলবল রীতিমতো তার অত্যাচারে কেঁদে ফেলেছেন। প্রথমদিন রোদ্দুর রায়কে দেখার পর তাকে নিয়ে একটু মজা মশকরা করেছিলেন পাপ্পুরা কিন্তু রোদ্দুর রায় কি জিনিস তা এখন হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন তারা! সেদিন রাত্রেই তারা বুঝতে পারেন রোদ্দুর রায়কে নিয়ে মজা করবার কী ফল হতে পারে? বর্তমানে রোদ্দুর রায়কে ভয় দেখানোর বদলে রোদ্দুর রায়ের ভয়ে তটস্থ হয়ে পড়েছেন বড় বড় দাগি আসামিরা পর্যন্ত!

রাত হলেই নিজস্ব ভঙ্গিমায় চিৎকার-চেঁচামেচি থেকে শুরু করে অশ্লীল গান গাইতে শুরু করেন তিনি, এখানেই শেষ নয় মোক্সা নিয়ে আন্তর্জাতিক বিপ্লব এবং বিষয়টির ওপর তার গবেষণা নিয়ে সারারাত ধরে অবিরাম বক্তৃতা দিতে থাকেন তিনি। এই শুনতে শুনতে কাঁদো-কাঁদো অবস্থা হয়েছে পাপ্পু ও তার দলবলের। এই রকম পরিস্থিতিতে পুলিশ আধিকারিকদের পাপ্পু ও তার সঙ্গীরা আবেদন করে অন্য ঘরে সরে গিয়েছেন! তবে সেখানে গিয়েও রোদ্দুর ফোবিয়ায় ভুগছেন তারা! তাদের আতঙ্ক ভবিষ্যতে রোদ্দুর রায়ের সামনা সামনি হলে কী হবে!

Back to top button