ভাইরাল

ভাইরাল হওয়ার বিপদ হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন মাখা কাকু! লাটে উঠল ব্যবসা, ইউটিউবারদের অত্যাচারে অসুস্থ ‘মাখা কাকু’, জনপ্রিয়তা আর চান না তিনি শান্তিতে ব্যবসা টুকু করতে চান

ভাইরাল হওয়া শুধু আনন্দের নয় কখনো কখনো বেশ বিপদজনক‌ও। তা বোঝা যায় মাখা কাকুকে দেখলেই। হ্যাঁ রবীন ঘোষ নামের ব্যক্তিটি রাতারাতি মাখা কাকু রূপে সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিচিতি পেয়ে যান তার অনবদ্য ব্যবসার কারণে! কাঁচা সবজি থেকে শুরু করে ডাব পর্যন্ত সবকিছুই মেখে দিয়ে অনবদ্য ভাবে প্রস্তুত করে তা বিক্রি করেন মাখা কাকু। এখানেই তার কৃতিত্ব শেষ নয়, সবজি, ঠান্ডা পানীয় এমনকি ম্যাগি অবধি মেখে দেন তিনি, তারপর চটকদার ভাবে তৈরি করেন ও তা বিক্রি করে নিজের দিন গুজরান করেন। এরকম একজন মানুষ রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ার কারণে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন আর সেই জনপ্রিয়তায় তার জন্য কাল হয়ে ওঠে!

হাওড়ার বানীপুরের বানী নিকেতন হাই স্কুলের সামনে দীর্ঘদিন ধরে পেঁপে, লাউ, পটল ঝিঙে সহ নানান কাঁচা সবজিকে বিভিন্ন মশলার সাথে মেখে উপাদেয় করে স্কুলপড়ুয়াদের বিক্রি করতেন রবীন ঘোষ অর্থাৎ মাখা কাকু। এরপর রাতারাতি একটি ভিডিওর মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যান তিনি আর সেই থেকেই রবীন ঘোষের নাম হয়ে যায় মাখা কাকু। ঠিক অনেকটা চা কাকু বা বাদাম কাকুর মতো, প্রথমদিকে ইউটিউবাররা যখন তাকে ঘিরে ধরতেন তখন এই জনপ্রিয়তা বেশ উপভোগ করেছিলেন তিনি কিন্তু পরবর্তীতে তিনি বুঝতে পারেন জনপ্রিয় মানুষের অনেক বিপদ‌ও আছে। তাই এখন জনপ্রিয়তার হাত থেকে রেহাই চাইছেন তিনি শান্তিতে খালি নিজের ব্যবসা টুকুই করতে চাইছেন। কিন্তু কী এমন হলো মাখা কাকুর সাথে?

সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ডিং হয়ে যাওয়ার পরে কিছু ইউটিউবাররা রীতিমতো অদ্ভুত অদ্ভুত দাবি নিয়ে তার কাছে এসে হাজির হয় কেউ বলতে থাকেন কাঁচা বাঁশ মেখে দিতে আবার কেউ দাবি করেন ঘাস মেখে দিতে। এই সব অদ্ভুত দাবি মেনে নিয়েছিলেন তিনি , ইউটিউবাররা সেইগুলোকে দেখে নিজেদের পেজের ভিউ বাড়াতে শুরু করেন। তার ভিডিও দেখিয়ে ইউটিউবাররা যেখানে টাকা রোজগার করছেন সেখানে তিনি এই কারণে ক্রমাগত ট্রোলিং এর শিকার হতে থাকেন। একসময় ইউটিউবারদের সাথে এই বিষয় নিয়ে বিবাদে জড়িয়ে পড়েন তিনি‌। তারপর ক্রমাগত ট্রোলিং, কুকথা মানসিক আঘাত পেতে পেতে বিপর্যস্ত হয়ে ওঠেন মাখা কাকু।

মাখা কাকু বর্তমানে অসুস্থ তার ব্যবসা উঠে যাওয়ার যোগাড় হয়েছে। তাই অসুস্থ অবস্থায় তিনি অনুরোধ করছেন‌ সকলকে, তিনি আর খ্যাতি চান না, জনপ্রিয় হতে চান না, ভাইরাল হতে চান না তিনি,আগের মতো নিজের ব্যবসাটুকুই শান্তিতে করতে চান।

Back to top button