ভাইরাল

“অভিষেককে ছাড়া আমাদের পূজো অসম্পূর্ণ”, অভি নেই, ঢাকের শব্দই শুনতে চান না সংযুক্তা, মন খারাপের শহর ছেড়ে দিচ্ছেন স্ত্রী সংযুক্তা

এবছরের পুজোটা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের পরিবারের কাছে যেন একেবারে আলাদা। বাকি বছরের তুলনায় এ বছরের পূজোয় যেন কোন রং নেই, একেবারে ফিকে। এমনটাই জানালেন সদ্যপ্রয়াত অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায় স্ত্রী সংযুক্তা। চারিদিকে আকাশে বাতাসে এখন পুজোর গন্ধ। মানুষের ঢল রাস্তাঘাটে, পূজার কেনাকাটি করতে সকলেই ব্যস্ত। নতুন জামা জুতো কিনতে সকলেরই ভিড় লেগে গেছে রাস্তাঘাটে। কিন্তু এ বছর পুজোতে নতুন কিছু করার ইচ্ছে নেই প্রয়াত অভিনেতার মেয়ে ডলের।

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৫৭ বছর বয়সেই অকাল প্রয়াণ হয় অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের। চলতি বছরের গত মার্চ মাসের ২৪ তারিখে নিজের বাড়িতেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। প্রতিবছরই নিজের বাড়িতে ধুমধাম করে দুর্গাপূজা করতেন অভিনেতা। প্রতিবছর এই সময় অভিনেতার বাড়িতে লোকজন আত্মীয়-স্বজনের ঢল থাকতো। কিন্তু এ বছর চারিদিকটাই ফাঁকা। তাই পুজোতে মন নেই পরিবারের কারোর। বিশেষ করে অভিনেতা স্ত্রী এবং কন্যা এ বছর পূজাকে আনন্দ করার কথা ভাবতেই পারছেন না।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে অভিনেতা স্ত্রী জানিয়েছেন “না, এ বারে আর বাড়িতে পুজোটা করতে পারব না। অনেকে বলছেন পুজো করলে অভির ভাল লাগবে, কিন্তু আমি এ বারটা পারব না। শহর থেকে বহু দূরে কোথাও চলে যেতে চাই, যেখানে কোনও ঢাকের আওয়াজ কানে আসবে না। কোনও হুল্লোড় থাকবে না। পুজোটাকে ভুলে থাকতে চাই।”

দুর্গাপূজা মানেই বাঙালির কাছে একটা অন্যরকম অনুভূতি। চারিদিকে আলো, রোশনাই, মানুষের ভিড়, মণ্ডপে মন্ডপে প্রতিমা দর্শন, খাওয়া দাওয়া, হইহুল্লোড় সবকিছু। গত চার বছর ধরে নিজের বাড়িতেই দুর্গাপূজা করছিলেন অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু এ বছর তিনিই নেই তাই এবছর পূজো সেই আমেজটাই নিভে গিয়েছে চট্টোপাধ্যায় বাড়ি থেকে। তাই জন্যই এবার পুজোতে কলকাতা ছেড়ে কেরালা যাওয়ার পরিকল্পনায় করছেন সংযুক্তা এবং তার মেয়ে। তিনি জানিয়েছেন “অভিকে ছাড়া পুজো ভাবতেই পারছি না। তাই শহর ছেড়ে মেয়েকে নিয়ে ভাবছি কেরলে চলে যাব। আমরা যেখানেই থাকি না কেন, জানি অভি সঙ্গে আছে। ডল এখন অনেকটা শক্ত হয়ে গিয়েছে। তবে পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়ে উঠতে আরও একটু সময় লাগবে।”

Back to top button