ভাইরাল

‘এখন আর কেউ খোঁজ নেয় না!কোন রকমে দিন চলছে’ হুজুগ কাটতেই ভাইরাল হওয়া চা কাকুকে ভুলেছেন সবাই! কেমন আছেন এখন চা কাকু মৃদুল দেব?

কথায় বলে হুজুগের দুনিয়া। মানুষ কোন একটা হুজুগ নিয়ে মাতলে সেটা নিয়ে কিছুদিন মাত্রই থাকেন। এটা সব ক্ষেত্রেই নিয়ম। যেমন দেখা যায় যখন যে ভাইরাল হয় তাকে নিয়ে রীতিমতো মাতামাতি হয়, আবার সেই মানুষটি দিন কয়েক পরে গেলেই লাইম লাইটের পিছনে চলে যান, তাকে ভুলে যায় সকলেই। ইন্টারনেটের দুনিয়ায় প্রতিমুহূর্তে কেউ না কেউ ভাইরাল হচ্ছে কিন্তু কতজন টিকে আছেন এটাই বড় প্রশ্ন।

ভাইরাল হয়ে জনপ্রিয়তা লাভ করার পর কোন মানুষ যখন আবার তার স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসেন এবং তখন তাকে নিয়ে আর সেই রকম মাতামাতি হয় না তখন সেই মানুষটা রীতিমতো কষ্ট ভোগ করেন এমনটা বহুবার দেখা গেছে। যেমন লকডাউনের মধ্যে ভাইরাল হওয়া চা কাকু। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে প্রায় দুই বছর ধরে লকডাউন চলেছিল ভারতে। এই সময় একজন ভদ্রলোক লকডাউন এর মধ্যেও চা খেতে এসেছিলেন তাকে জিজ্ঞেস করা হয় কেন লকডাউনের মধ্যে তিনি এখানে এসেছেন? তিনি তখন সরল ভাবে বলেছিলেন, চা খেতে পারব না আমরা?

এই কথাটাই রীতিমত ভাইরাল হয়ে যায় আর তারপর তার জীবনযাত্রা বদলে যায় আগে তিনি দিনমজুরের কাজ করতেন কিন্তু ভাইরাল হওয়ার পর অভিনেত্রী সাংসদ মিমি চক্রবর্তী তাকে একটি দোকান খুলতে সাহায্য করেন, তারপর স্বচ্ছলভাবে তার জীবন কাটতে থাকে। কিন্তু সম্প্রতি কী করছেন চা কাকু জানলে অবাক হবেন!

একটি সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে চা কাকু মৃদুল দেব বলেছেন, বর্তমানে বাড়িতে ঘর মোছা বাজার করার কাজ করে সকাল কাটে তার। এক প্রকার কোনো রকমে দিন চলছে তার। এখন আর নতুন করে কেউ তার সাথে যোগাযোগ করে না। একই সাথে তিনি আরো বলেন যে, যখন তিনি ভাইরাল হয়ে ছিলেন তখন সব জায়গায় তার কথা হতো। কিন্তু এখন আর কেউ তার খোঁজ নেয় না। ছেলের আয়েই তার সংসার চলে আর দোকানটাও তিনি টুকটাক করে চালান। তার পুঁজি নেই তাই সেভাবে দোকানে মাল তুলতে পারেন না। তবে রোজ বিকেলের দিকে দোকান টা খোলেন।

Back to top button