ভাইরাল

দ্বিতীয় অরিজিৎ সিং বাংলায়? অরিজিৎ সিং এর গাওয়া কঠিন গান সাবলীলভাবে গেয়ে নেটদুনিয়ায় ভাইরাল পশ্চিম মেদিনীপুরের ছেলে আকাশ! তুমুল ভাইরাল ভিডিও

অরিজিৎ সিং এর গান ভালবাসেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যায় না, তার গলায় গাওয়া গানে মুগ্ধ হয়ে যান দেশবাসী। কিছুদিন আগে তার গলায় বাংলা গান শুনে মুগ্ধ হয়ে গিয়েছেন আরো একবার বাঙালি। এখনো অরিজিৎ সিং এর আন্তর্জাতিক মঞ্চে গাওয়া গান ‘দোল দোল দোল তোল পাল তোল’ এই গানের রেশ ভুলতে পারেছেন না মানুষ, তার‌ই মধ্যে আরো একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় হাজির হল!

সাদা কালো ফ্রেম পরে আকাশ নামের এক যুবক গান গেয়েছেন। তার সাথে লিখেছেন তার গুরুদেবের কথা‌ও। আপামর বাঙালির ভালোবাসার মানুষ অরিজিৎ সিংকে গুরু হিসেবে মেনেছেন তিনি, তার উল্লেখ‌ও করেছেন তিনি তার লেখায়, “গুরুদেব অরিজিৎ সিং এর গানটা শোনার পর শিহরিত হলাম, কত সাবলীলভাবে গান গাইলেন… তাই আমিও একটু চেষ্টা করলাম” এই গান শুনে রীতিমতো মুগ্ধ হয়ে গিয়েছেন নেটিজেনরা। মুহুর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়েছে আকাশের গাওয়া গানের ভিডিও।

শিল্পীর পুরো নাম, আকাশ কুমার দাস, পশ্চিম মেদিনীপুর ডেবরা ব্লকের বহুলাশিনীতে বাড়ি , বর্তমানে হরিহরপুর উপ-ডাকঘরে পোস্টমাস্টারের চাকরি করেন তিনি। কিন্তু তার চাকরী বা পেশা কোনটাই তার গানের প্রতি অদম্য নেশাকে কমাতে পারেনি। ছোট থেকেই গানের প্রতি ভালোবাসা ছিলো অরিজিৎ সিংয়ের এই অন্ধ ভক্তের।

আকাশের কথায় তার কাকুই সুরের জগতের সাথে তার প্রথম পরিচয় করিয়ে ছিলেন এরপর গান শেখেন তিনি আরো ভালো করে, গান গাইতে গাইতেই অরিজিৎ সিং এর ভক্ত হয়ে ওঠেন তিনি, নিজের মন থেকে অরিজিৎ সিংকে গুরুদেব হিসেবে মানেন। তার ‘দোল দোল দোল’গানটি ভাইরাল হওয়ার পর খ্যাতি লাভ করা আকাশ বলেন,“একটাই স্বপ্ন অরিজিৎ সিংয়ের সঙ্গে একবার দেখা করতে চাই। তার পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করতে চাই।”

ভাইরাল হওয়ার পর তার অনুরাগী সংখ্যাও বেড়েছে, যদিও সোশ্যাল মিডিয়াতে খুব একটা সময় কাটাতে পছন্দ করেন না আকাশ। তিনি নিজের পরিবার, কাজ ও গান এই নিয়ে খুশি থাকতে চান। গানের প্রতি ভালোবাসা সম্পর্কে ও নিজের জীবন সম্পর্কে আকাশ বলেন, “চার বছর থেকে কাকুর কাছে গান শেখা। একই সঙ্গে পড়াশোনাটাও চালিয়ে গিয়েছিলাম। জুলজিতে স্নাতক হওয়ার পরেই এই চাকরিটা পেয়ে যাই। মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান। রুজির টানে কাজটা নিয়েছিলাম, তবে শিল্পীর সম্মান পাওয়ার স্বপ্নটা আজও রয়েছে।”

Back to top button