ভাইরাল

শাড়ি পরে পিঠে স্কুল ব্যাগ নিয়ে হাঁটতে হাঁটতে দুর্দান্ত ব্যাক ফ্লিপ করলো বাঙালি মেয়ে! স্কুল ছাত্রীর দুর্দান্ত ব্যাক ফ্লিপে মুগ্ধ নেটিজেনরা

আজকের দিনে দাঁড়িয়ে বর্তমান প্রজন্মের কাছে বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম সোশ্যাল মিডিয়া। এখন আট থেকে আশি প্রায় সকলেই সোশ্যাল মিডিয়াতে নিজেদের অবসরের বেশিরভাগটা কাটাতে পছন্দ করেন। আর সোশ্যাল মিডিয়াও হতাশ করে না তার নেটিজেনদের। প্রতিদিন প্রতিমুহূর্তে নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে একাধিক ভিডিও ও ছবি। তবে কনটেন্ট ভালো হোক কিংবা খারাপ নেটিজেনদের আকর্ষণ করতে পারলেই তা ভাইরাল হয়। বলাই বাহুল্য, বর্তমান যুগে মোবাইল ফোন আর তার সাথে ইন্টারনেট গোটা বিশ্বকে এনে দিয়েছে আমাদের হাতের মুঠোয়। পাড়ার খবর হোক কিংবা দেশ-বিদেশের সবটাই আমরা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে খুব সহজেই মুঠোফোনে দেখে নিতে পারি।

রানীগঞ্জের মিলি সরকার নেটদুনিয়ায় বেশ জনপ্রিয় তা বলাই যায়। সোশ্যাল মিডিয়ার ডেসক্রিপশন অনুযায়ী তিনি যোগাতে গোল্ড মেডেল পেয়েছেন। যোগার পাশাপাশি তিনি একজন ভালো নৃত্যশিল্পীও, তা তার সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় চোখ রাখলেই স্পষ্ট হবে। ইনস্টাগ্রামে তার ফলোয়ার্স সংখ্যা নেহাত কম নয়, ১ লাখ ৪৫ হাজার। প্রায়ই তিনি তার যোগা অনুশীলনের নানা ছবি ও ভিডিও শেয়ার করে ভাইরাল হন নেটিজেনদের একাংশের মধ্যে। সম্প্রতি তার স্কুল ড্রেসে পিঠে ব্যাগ নিয়ে ব্যাক ফ্লিপের ভিডিও তুমুল ভাইরাল হয়েছে নেটদুনিয়ায়। ভিউজও হয়েছে প্রচুর।

বেশ কয়েকদিন আগে রানীগঞ্জের মিলি সরকার নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে রিল ভিডিও আকারে নিজের ব্যাক ফ্লিপের একটি ভিডিও শেয়ার করেছিলেন। নিজের স্কুল ড্রেসে অর্থাৎ শাড়িতে পিঠে ব্যাগ নিয়ে রাস্তা দিয়ে হাঁটতে হাঁটতেই প্রকাশ্য রাস্তায় সকলের সামনে নির্ভয়ে, হাসিমুখে ব্যাক ফ্লিপ দিলেন, যা দেখে আবারো মুগ্ধ হলেন নেটনাগরিকদের একাংশ।

তার ফিটনেস প্রতিমুহূর্তে অবাক করে তার ভক্তদের। তিনি নিজের অনুশীলনের ছোট ছোট দৃশ্য শেয়ার করে থাকেন সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায়, যা অন্য ভিডিও গুলোর মতই ছড়িয়ে পড়ে তার ফলোয়ার্সদের মধ্যে। নিজের এই কঠোর অনুশীলনের জন্য সকলের কাছে প্রশংসিতও হন তিনি। অনেকসময় তার এই অনুশীলনে সাহায্য করে থাকেন তার বাবা-মাও। মাঝে মাঝে তার শরীরের ফ্লেক্সিবিলিটি দেখে অবাক হন বেশিরভাগ নেটিজেনরাও। তিনি যে এই বয়সেই যথেষ্ট দক্ষতার সাথে যোগাসন করতে পারেন তা সত্যিই প্রশংসনীয়।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Mili Sarkar (@milisarkar72)

Back to top button