Story

ছোট থেকেই বদমেজাজী! ভাই সোহেলকে ইঁট মেরে মাথা ফাটিয়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন বলিউড অভিনেতা সলমন খান

বলিউড ইন্ডাস্ট্রির বেশ পরিচিত মুখ সোহেল খান। তিনি বলিউডের ভাইজানের ছোট ভাই। উল্লেখ্য আরবাজ খান, সোহেল খান ও সালমান খান তিন ভাই। তিনজনেই যুক্ত রয়েছেন এই বলিউড ইন্ডাস্ট্রির সাথে। বড়পর্দায় বেশ কয়েকটি কাজ একসাথে করতে দেখা গিয়েছে এই তিন ভাইকে। কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না ছোটবেলায় ভাই সোহেল খানের মাথায় পাথর ছুঁড়ে মাথা ফাটিয়ে দিয়েছেন সালমান। সেই ঘটনা নিজেই সকলকে জানিয়েছেন বলিউডের ভাইজান।

একবার ‘কপিল শর্মা শো’ত ছোটবেলার এই দস্যিপনা কথা নিজেই বলেছিলেন সালমান খান। অভিনেতা জানান, সেই সময় তারা তিন ভাই টারজেন ছবিটি দেখেছিলেন। সেটি দেখেই পাথর ছুড়ে ছুড়ে খেলার অভ্যাস হয়েছিল তাদের। আর সেই সময়ে পাথর ছুঁড়ে খেলতে গিয়েই এই দুর্ঘটনা ঘটিয়েছিলেন তিনি।

অভিনেতা জানান, সোহেল খান খেলতে খেলতে একটি ডাস্টবিনের পিছনে চলে গিয়েছিলেন পাথর ছুড়ে খেলতে খেলতে হঠাৎ করেই তার মাথায় লেগে যায় একটি পাথর। সাথে ছিলেন আরবাজ খানও। হঠাৎ করেই ডাস্টবিনের পিছন থেকে তারা আওয়াজ শুনতে পান সোহেলের। এরপরই তারা দেখেন ডাস্টবিনের পিছন থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় বেরিয়ে আসছেন সোহেল। সেইসময় ভয় পেয়ে আরবাজ ও সালমান সেখান থেকে পালিয়ে গিয়েছিলেন। পরে অবশ্য তাকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছিল হাসপাতালে।

নায়ক হিসেবে নয় পরিচালক হিসেবে বলিউডে নিজের যাত্রা শুরু করেছিলেন সোহেল। তার পরিচালিত প্রথম ছবির নাম ছিল ‘অওজার’। ছবি দিয়ে বলিউডে বিশেষ চলেনি, তা বলাই যায়। এই ছবিতে স্বয়ং সালমান খান ও সঞ্জয় কাপুর ছিলেন এই ছবির নায়ক। ১৯৯৮’তে ‘পেয়ার কিয়া তো ডরনা কেয়া’ ছবিটি পরিচালনা করার পর থেকেই তার জীবনের মোড় ঘুরে যায়। দর্শক মাঝে বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করতে থাকেন তিনি। তবে এতকিছুর পরেও তাকে সালমান খানের ভাই বলেই অভিহিত করেন এখনো বেশিরভাগ লোকজন। তবে এই তিন ভাইয়ের মধ্যে সেই নিয়ে কখনোই কোনো বিবাদ ছিল না।

পরবর্তীকালে বলিউডে নায়ক হিসেবে ডেবিউ ঘটে অভিনেতার। ‘ম্যায়নে দিল তুঝকো দিয়া’ ছবিতে অভিনয় করার মাধ্যমে বড়পর্দায় আবির্ভাব ঘটে সোহেল খানের। তারপর থেকে একাধিক জনপ্রিয় হিট ছবিতে দেখা মিলেছে তার। ভাইজানের সাথেও বেশ কয়েকটি ছবিতে দেখা গিয়েছে তাকে। তবে অস্বীকার করার উপায় নেই এই তিনজনের মধ্যে সালমান খানের জনপ্রিয়তাই সবথেকে বেশি। সেই নিয়ে তাদের মধ্যে কোনদিনই কোন রেষারেষি ছিলনা। একে অপরকে বেশ পছন্দ করেন তারা।

Back to top button