ভাইরাল

দুর্দান্ত সুরে খালি গলায় মহম্মদ রফির গান গেয়ে সবাইকে চমকে দিলেন গরীব যুবক! মুগ্ধ সোশ্যাল মিডিয়া, ভাইরাল ভিডিও

বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনকিছুই ভাইরাল হতে বেশি সময় লাগে না। ভালো হোক কিংবা খারাপ কোনো কনটেন্ট যদি নেটিজেনদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারে তাহলে তা ভাইরাল হবেই। প্রতিদিনের নেটদুনিয়ায় হাজার হাজার ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে। তাদের মধ্যে এমন অনেক ভিডিও থাকে যা সত্যিই আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে এবং মন ছুঁয়ে যায়। থেকে থেকে এমন কিছু ভিডিও ভাইরাল হয়, যা আমাদের মনে থেকে যায়। সম্প্রতি তেমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায়।

সম্প্রতি নেটমাধ্যমে যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে একটি গ্যারেজের সামান্য মেকানিক মহম্মদ রফি সাহেবের গাওয়া ‘চাহুঙ্গা মে তুঝে সাঞ্ঝ সাবেরে’ গানটি নিখুঁতভাবে গিয়ে শুনিয়েছেন এক সংবাদমাধ্যমে। এই সংবাদমাধ্যমের হাত ধরে এই ছেলেটির গান গাওয়ার ভিডিওটি শেয়ার হওয়ার সাথে সাথেই ভাইরাল হয়েছে। তার গান শুনে বোঝার উপায় নেই তিনি কোনদিন প্রশিক্ষণ পাননি। এমনকি তার বাড়িতে টিভি পর্যন্ত ছিল না। রেডিওতে শুনে শুনেই গান শিখেছেন তিনি। খুব স্বাভাবিকভাবেই তার এই অসামান্য প্রতিভা মানুষের সামনে আসতেই তিনি প্রশংসিত হয়েছেন।

‘দোস্তি’ ছবিতে মহম্মদ রফি সাহেবের গাওয়া অন্যতম হিট জনপ্রিয় গান ‘চাহুঙ্গা মে তুঝে সাঞ্ঝ সাবেরে’। সম্প্রতি এই গানটি যে যুবককে গাইতে দেখা গিয়েছে তার নাম মহম্মদ সিরাজ। সম্ভবত আসামের কোন এক জেলার বাসিন্দা তিনি। বর্তমানে এই ব্যক্তি এক সামান্য গ্যারেজ মেকানিক। তার মাসিক আয়ও খুবই সামান্য। তার পরিবারের সদস্য সংখ্যা ২০। ছোট থেকেই অনেক সংগ্রাম করে বড় হয়েছেন তিনি। এখনো একই ভাবে সংগ্রাম করে সংসার চালাতে হয় তাদের।

অথচ এতকিছুর মধ্যেও গানের প্রতি ভালবাসাটা তার রয়ে গিয়েছে। গানের গলা শুনলে রীতিমত অবাক হতে হয়। প্রথম ছোট শুনলে মনে হবে কোন প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত গায়ক গানটি গেয়েছেন। কিন্তু পুরো ভিডিওটি দেখলেই পুরো বিষয়টা স্পষ্ট হবে। এমন এক প্রতিভার খোঁজ পেয়ে কোনো এক সংবাদমাধ্যম তার কাছে যায় এবং তার প্রতিভাকে তুলে ধরে সকলের সামনে। নিজের প্রতিভার জন্যই ধীরে ধীরে মানুষের মধ্যে পরিচিতি পেয়েছেন এই যুবক। এমন ভিডিও নেটমাধ্যমে শেয়ার হলে তো ভাইরাল হবে, সেটাই স্বাভাবিক। তার গান শুনে নেটিজেনদের একাংশের দাবি প্রশিক্ষণ না পেয়েও যে এমন গান গাইতে পারে, প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হলে তিনি হয়তো প্রতিষ্ঠিত হতেন ইন্ডাস্ট্রিতে। তবে তার ভবিষ্যতে কি আছে! তা সময়ই বলবে।

Back to top button