Story

‘লকডাউনে মোবাইল রিচার্জেরও টাকা ছিলনা, সবজি বিক্রি করতে হয়েছে’! মধ্যবিত্ত হয়েও আজ নিজের পরিশ্রমের জোরে সফলতা পেয়েছেন ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ খ্যাত অভিনেতা ঋত্বিক মুখার্জি

এই মুহূর্তে জি বাংলার ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ ধারাবাহিকের মাধ্যমে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছে গিয়েছেন টলিউড অভিনেতা ঋত্বিক মুখার্জি। তবে এবার তার সংগ্রামের দিনগুলির কথা সকলের সামনে তুলে ধরতে দেখা গেল অভিনেতাকে। জানালেন কিভাবে লকডাউন এর সময় কঠিন আর্থিক পরিস্থিতির মধ্যে দিন কাটাতে হয়েছিল তাকে।

ঋত্বিক জানিয়েছেন এক বন্ধুর পরামর্শে কলেজ পাসের পর অভিনয় জগতে এসেছিলেন তিনি। এক সময় নিয়মিত থিয়েটারে কাজ করতেন এই অভিনেতা। তবে তাতে আর্থিক সুরাহা না হওয়ায় কাজে ঢুকে পড়েছিলেন তিনি। একটু টাকা জমতেই ফের ফিরে এসেছিলেন থিয়েটারের অভিনয়ে। সোহাগ সেনের কাছে অভিনয় শেখার পাশাপাশি টানা থিয়েটার করে গিয়েছেন ঋত্বিক।

কিন্তু লকডাউন এর সময় চরম আর্থিক সংকটে পড়তে হয় তাকে। শেষ পর্যন্ত হাতে ছিল না রিচার্জ করার মতো টাকাটুকুও। তাই বাধ্য হয়ে পাড়ার মোড়ে সবজি বিক্রি করতে বসেন তিনি। যে সময় ভেবেছিলেন অভিনয় করে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়া বোধহয় আর হবেনা, ঠিক সে সময় ডাক মিলেছিল ‘প্রথমা কাদম্বিনী’ ধারাবাহিকে অভিনয় করার। এরপর পেয়ে যান জি বাংলার ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ।বলাই বাহুল্য পর্দার সাত্যকির এই সংগ্রামের গল্প শুনে অনুপ্রাণিত হয়েছেন তার অনুগামীরা।

Back to top button