Story

‘প্রেম করে বিয়ে, ২৫ বছরের দাম্পত্য, তবু শেষ জীবনে আলাদা থাকতেন সন্ধ্যা রায়-তরুণ মজুমদার’! সামনে এল প্রয়াত পরিচালকের অজানা জীবনকাহিনী

৯১ বছর বয়সে আজ প্রয়াণ ঘটেছে পরিচালক তরুণ মজুমদারের। বলাই বাহুল্য এই জনপ্রিয় প্রতিভাবান পরিচালকের মৃত্যুতে শোকাহত হয়ে পড়েছেন বাংলা সিনেমা প্রেমীরা। এবং তার পর থেকেই নেট দুনিয়ার মাধ্যমে নেট দুনিয়ার বাসিন্দাদের সামনে পরিচালকের ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে উঠে এসেছে একাধিক অজানা তথ্য। প্রসঙ্গত প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন পরিচালক তরুণ মজুমদার এবং অভিনেত্রী সন্ধ্যা রায়।

দীর্ঘদিন একসঙ্গে অত্যন্ত সফলভাবে সংসার করেছেন তারা। পাশাপাশি পেশাগত জীবনেও একসঙ্গে সাফল্য লাভ করতে সক্ষম হয়েছিলেন তারা একাধিক সিনেমায় পরিচালক এবং অভিনেত্রী হিসেবে কাজ করেছেন সন্ধ্যা রায় এবং তরুণ মজুমদার। তবে জানা যায় শেষ জীবনে আলাদা থাকতে শুরু করেছিলেন তারা। খাতায়-কলমে তাদের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়েছিল কিনা সে ব্যাপারে নানান জল্পনা ছিল অনুগামীদের মধ্যে। তবে এদিন জানা গেছে পরিচালকের অসুস্থতার খবর শুনে প্রার্থনা শুরু করেছিলেন অভিনেত্রী সন্ধ্যা রায়।

তবে শেষ রক্ষা হয়নি। ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গিয়েছে পরিচালকের শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী কোন প্রকার ফুলমালা নয় বরং অত্যন্ত সাধারণভাবে শেষ বিদায় দেওয়া হবে তাকে। তবে তার মৃত্যুর দিনে আজ অনুগামীদের সামনে উঠে এসেছে সন্ধ্যা রায় সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্কের কথা। যা চোখে জল এনে দিয়েছে নেটিজেনদের।

Back to top button