Story

রবীন্দ্রভারতীর বসন্ত উৎসবের প্রচুর ছবি ভাইরাল হয়! জীবনসাথী,মাধবীলতার শ্রাবণী কীভাবে অভিনয় জগতে এসেছিলেন?

জীবন সাথী ধারাবাহিকে ঝিলমের ভূমিকায় অভিনয় করে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন অভিনেত্রী শ্রাবণী ভূঞ্যা। ঝিলমের মতো একটি বলিষ্ঠ চরিত্রে শ্রাবণীর অভিনয় সকলকে মুগ্ধ করে দিয়েছে। সম্প্রতি স্টার জলসার একটি নতুন ধারাবাহিককে দেখা যাবে শ্রাবণীকে। ধারাবাহিকের নাম মাধবীলতা। এই ধারাবাহিকে তার অভিনীত চরিত্রের নাম শ্রাবণী। সেই ধারাবাহিকে গাছ প্রেমী এক বন্য মেয়ের ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে। সেখানেও তার চরিত্র হচ্ছে রণং দেহী। জীবন বাজি রেখে গাছ বাঁচানোর লড়াই বলবে মাধবীলতা ধারাবাহিক।

জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী দিদি নাম্বার ওয়ান এর মঞ্চে এসে একবার বলেছিলেন তার জীবনের গল্প। রচনা ব্যানার্জীর প্রশ্নের উত্তরে শ্রাবণী বলেন, ছোট থেকে নাচ করতে ভালোবাসতেন তিনি, নাচের প্রতি তার আলাদা একটা প্যাশন ছিল। এরপর জুওলজি নিয়ে পড়াশোনা করেন শ্রাবণী। শ্রাবণী কলকাতাতেও এসেছিলেন নাচের জন্য। শ্রাবণীর কথায়, কপালে লেখা ছিল বলেই অভিনয় জগতে এসেছেন তিনি।

নাচ নিয়ে রবীন্দ্রভারতীতে ভর্তি হয়েছিলেন শ্রাবণী। রবীন্দ্রভারতীতে বসন্ত উৎসব ভীষণ ফেমাস। সেই বসন্ত উৎসবেই তার কতগুলি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়, তার সেই ছবি দেখে একজন আঙ্কেল তাকে ফোন করে বলেন যে ব্লুজের প্রোডাকশন থেকে ফোন যাবে তার কাছে। এরপর ব্লুজের স্নেহাশীষ চক্রবর্তী তার সাথে যোগাযোগ করে নেন। তারপরই অভিনয় জগতে আসেন শ্রাবণী।

কথায় কথায় শ্রাবণী আরো বলেন যে তিনি একজন মানুষের সাথে বহু বছর ধরে সম্পর্কে রয়েছেন। কিন্তু সম্পর্কটি বর্তমানে টালমাটাল অবস্থায় রয়েছে। রচনা ব্যানার্জী যখন কারণ জিজ্ঞাসা করেন, তখন শ্রাবণী বলেন,তার প্রেমিক ইন্ড্রাস্ট্রির বাইরের একজন লোক, তিনি গর্ভমেন্ট চাকরি করেন। তিনি প্রথমদিকে শ্রাবণীকে কাজের ব্যাপারে শ্যুটিংয়ের ব্যাপারে খুব উৎসাহিত করতেন তবে এখন তিনি এই বিষয়টা ঠিক বোঝেন না, আসলে শুটিংয়ের এই কাজে এত বেশি সময় লাগে আর শ্রাবণী কাজ নিয়ে এতটাই ব্যস্ত থাকে যে তাকে ঠিকমতো সময় দিতে পারেন না, সেই কারণে মাঝেমধ্যে দুজনার মধ্যে একটু ভুল-বোঝাবুঝি হয়ে যায়।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by mithai prem (@mithailoves)

Back to top button