Story

সলমন খানের ভাগ্য নির্ধারণ করেছিলেন আল্লু অর্জুন! তিনি ‘বজরঙ্গি ভাইজান’-এর অফার ছেড়েছিলেন বলেই লক্ষ্মীলাভ হয় সলমনের

বর্তমানে আল্লু অর্জুনে মজেছেন সকলে। বলিউড থেকে টলিউড আল্লু অর্জুনের রাজত্ব সব জায়গাতে। পুষ্পা ছবির মাধ্যমে দর্শকদের আরো কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছেন অভিনেতা। দক্ষিণ ইন্ডাস্ট্রি সুপারস্টার তো বটেই বর্তমানে বলিউডের ধীরে ধীরে নিজের রাজত্ব শুরু করেছেন এই অভিনেতা। একবার বলিউডের এক ছবির অফার এসেছিল দক্ষিণী এই অভিনেতার কাছে। তবে সেই ছবি করতে নারাজ ছিলেন অভিনেতা।

২০১৫ সালে ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ছবি নিয়ে আল্লু অর্জুনের কাছে প্রস্তাব পাঠিয়ে ছিলেন পরিচালক কবীর খান। কিন্তু সেই সময়ে নিজের অন্য আরেকটি ছবি নিয়ে বিশাল ব্যস্ত ছিলেন আল্লু অর্জুন। ফলে কবীর খানের প্রস্তাব তাকে ফিরিয়ে দিতে হয়। এরপর সে প্রস্তাব গিয়ে পৌঁছয় বলিউডের ভাইজান সালমান খানের কাছে। এরপর এর ঘটনা টা আমরা সকলেই জানি। এই ছবির হাত ধরে ভাইজান কতটা জনপ্রিয়তা পেয়েছিল বক্সঅফিসে তা সকলেরই জানা।

ভারতে হারিয়ে যাওয়া পাকিস্তানের একটি এক রত্তি মেয়ে মুন্নিকে তার বাড়িতে সঠিকভাবে পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব এসে পড়ে পবন অর্থাৎ বজরঙ্গি উপরে। নিপাট ভদ্র, সরল সাদাসিদে বজরঙ্গি অন্য ধর্মের ওই মূক শিশুটিকে তার দেশে সঠিকভাবে পৌঁছে দেওয়ায় পিছপা হয়নি, অনেক লড়াই করে সে নিজের সেই দায়িত্ব পালন করে। বলিউডের একঘেয়ে প্রেম-ভালোবাসা অ্যাকশন এর ছবি থেকে সরে গিয়ে একেবারে ভিন্ন স্বাদের এই ছবির দর্শকের মন ছুয়ে গিয়েছিল। রোমান্টিক অ্যাকশন এর অভিনেতা সালমান খান সেই ছবির মাধ্যমে পেয়েছিল দারুণ প্রশংসা।

এরপর কেটে গিয়েছে অনেকগুলো বছর। এখন অব্দি বলিউডে কাজ করার সুযোগ আসেনি আল্লু অর্জুনের। তবে এর আগেও বহুবার বলিউড ছবিতে অভিনয় করার সুযোগ এসেছিল তার কাছে। অভিনেতার দাবি ভাল ছবি পেলে তিনি নিশ্চয়ই কাজ করবেন বলিউডে কাজ করা তার জীবনের অন্যতম লক্ষ্য গুলির মধ্যে একটি।

Back to top button