Story

‘তুই গান চুরি করিস’, হাজার হাজার দর্শকের সামনে হিমেশ রেশমিয়া কে গান চুরি করার অপবাদ দিয়েছিলেন সালমান খান, সেই রাগের জন্যই এখনো অব্দি দুজনের মধ্যে মুখ দেখাদেখি বন্ধ

বলিউডের প্রথম সারির অভিনেতাদের মধ্যে অন্যতম হলেন ভাইজান অর্থাৎ সকলের প্রিয় সালমান খান। দীর্ঘ কয়েক দশক ধরে বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের রাজত্ব চালিয়ে যাচ্ছেন ভাইজান। সালমান খান শুধুমাত্র একজন ভালো অভিনেতা নন তিনি একজন ভালো মানুষও বটে। ইন্ডাস্ট্রিতে তার হাত ধরে বহু অভিনেত্রী পা রেখেছিলেন। একসময় গায়ক হিমেশ রেশমির পাশে দাঁড়িয়েছিলেন অভিনেতা।

বলিউডের সালমান খান হিমেশ রেশমি ও রাখি সাওয়ান্তের বন্ধুত্ব বেশ পুরনো। হিমেশ রেশমি বর্তমানে যতটা জনপ্রিয় প্রথম দিকে তার কিছুই ছিলেন না, সেই সময়ে পাশে ছিলেন সালমান। এরপর একের পর এক হিট সিনেমা প্লেব্যাক সিঙ্গার হিসেবে গান গেয়েছেন হিমেশ রেশমি। সালমান খানের একাধিক ছবিতে তিনি জনপ্রিয় সুপার হিট গান গুলি উপহার দিয়েছেন সকলকে।

আসলে ইন্ডাস্ট্রিতে এরকম অনেক শিল্পী রয়েছে যাদের ক্যারিয়ারের শুরুতে অনেক স্ট্রাগল করতে হয়েছে। হিমেশ রেশমি তাদের মধ্যে একজন, তার ক্যারিয়ারের শুরু থেকে তার হাতে কোনো কাজ ছিল না। এরপর ভাইজান তার নিজের ছবিতে গান গাওয়ার সুযোগ করে দেয়। সেখান থেকে তাদের বন্ধুত্ব গভীর হয়। তবে এই গভীর বন্ধুত্ব থাকা সত্ত্বেও একসময় অনস্ক্রিন তাদের মধ্যে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছিল।

একবার এক রিয়েলিটি শো এর মঞ্চে সালমান খান হিমেশ রেশমি কে গান চুরি করার অপবাদ দেন এবং এই কথাটি মজার ছলে সালমান ভাই বললেও হিমেশ রেশমি তাতে অপমানিত বোধ করেন। আর তখনই হিমেশ জানান যে তিনি গান চুরি করে না এবং সালমান খান সকলের সামনে বলেন আনু মালিকের বেশ কয়েকটি গান হিমেশ চুরি করেছে। এরপর সালমান খান হিমেশ কে গান গাওয়ার জন্য অনুরোধ করে কিন্তু হিমেশ রেশমি রাজি হন না। তিনি বলেন যে একটু আগেই সালমান খান তার গান নিয়ে মজা করছিলেন তাকে চোর বলে অপবাদ দিয়েছিলেন তাহলে তার কাছে কেন গান শুনতে চাইছে সে। আর এরপর থেকেই দুজনের মধ্যে মুখ দেখাদেখি বন্ধ।

Back to top button