Story

কর্মজীবনে সুখী হলেও সুখ হলো না দাম্পত্যে, স্বামীর দ্বিতীয় স্ত্রী কে নিয়ে মুখ খুললেন অনুশ্রী দাস

এক সময় টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অনুশ্রী দাস। দিয়েছেন একের পর এক জনপ্রিয় সব সিনেমা। টলিউডের কান পাতলেই শোনা যায় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের কাজের দুনিয়ার থেকে বেশি ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে আলোচনা। এমন বেশ কিছু অভিনেতা অভিনেত্রী আছেন যাদের জীবন প্রায় একটি গল্পের মত। এমন এক অভিনেত্রী হলেন অনুশ্রী দাস। চলুন জেনে নিই তার সম্পর্কে কিছু অজানা কথা।

অভিনেত্রী তার কর্মজীবনে প্রবেশ করেন ১৯৯১ সালে ভবেশ কুন্ডু পরিচালিত “বউরানী” সিনেমার হাত ধরে। মুক্তির পর রূপালী পর্যায় ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে সিনেমাটি। এরপরে দিয়েছেন বিখ্যাত সব সিনেমা। বউরানীর পর আর পিছন ঘুরে তাকাতে হয়নি অভিনেত্রীকে। অনেক তৎকালীন জনপ্রিয় অভিনেতাদের সাথে জুটি বেঁধেছিলেন তিনি। তার মধ্যে সবথেকে জনপ্রিয় ছিল ভাস্করের সাথে অনুশ্রী জুটি। কিন্তু কর্মজীবনে সুখী হলেও সুখী হতে পারেননি ব্যক্তিগত জীবনে।

অভিনেত্রী যখন সাফল্যের মধ্যগগনে তখনই তার জীবনে আসে প্রেমের বসন্ত। টলিউডের তৎকালীন বিখ্যাত খলনায়ক ভরত কল এর সাথে প্রেমের বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার অভিনেত্রী। বেশ কয়েক বছর দীর্ঘ প্রেমালাপের পর বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তারা। কিন্তু শোনা যায় অভিনেত্রীর সাফল্যে ঈর্ষান্বিত হয়ে পড়েন তার স্বামী ভরত। তাই বিবাহের কিছু দিনের মধ্যেই বিচ্ছিন্ন হয় তাদের সম্পর্ক। এরপরে বহু টলিউডের অভিনেত্রীর সাথে নাম জড়ায় ভরত কলের।

তবে এর পরেই অভিনেতা ভরত কল টলিউডের আরো এক জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়শ্রী মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে সম্পর্কে আবদ্ধ হন। তার কিছুদিনের মধ্যেই দুজনে বিবাহ বন্ধনেও আবদ্ধ হয়েছিলেন। তবে সম্প্রতি খড়কুটো ধারাবাহিকে অভিনেত্রী অনুশ্রী দাস, জয়শ্রী মুখোপাধ্যায় ও ভরতকল কে স্টার জলসা জনপ্রিয় ধারাবাহিক খরকুটোতে একত্রে অভিনয় করতে দেখা যাচ্ছে। পর্দা একেবারে দুই বোনের সম্পর্ক অনুশ্রী আর জয়শ্রীর। এ বিষয়ে এক বিশিষ্ট সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অনুশ্রী বলেন, “বাস্তব জীবনে একাধিক উত্থান পতন থাকলেও এর সঙ্গে পেশাগত জীবনে কোনরূপ সমস্যা নেই”।

Back to top button