Story

একসময় পেটের ভাত জোগাড় করতে ছিলেন সুপারস্টার যশ এর দেহরক্ষী, সেখান থেকে বর্তমানে একজন জনপ্রিয়তা অভিনেতা, জেনেনিন KGF ছবির ভিলেনের আসল পরিচয়

বর্তমানে বক্সঅফিসে বিপুল পরিমাণ চাহিদা বেড়েছে দক্ষিণের সিনেমা গুলির একের পর এক দক্ষিণ ভারতের সিনেমা যার ফলে দক্ষিণী সিনেমার প্রতি মানুষের ঝোঁক বাড়ছে। বলিউডকে একের পর এক টেক্কা দিয়ে চলেছে দক্ষিণ ভারতের ছবিগুলি যার ফলে বলিউডে বেশিরভাগ ছবি ফ্লপ হচ্ছে বক্স অফিসে।

সম্প্রতি বক্সঅফিসে মুক্তি পেয়েছে কেজিএফ চ্যাপ্টার টু। ছবি বক্স অফিসে মুক্তি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই হলে ভিড় জমিয়েছেন দর্শক। এর আগে কেজিএফ মুক্তি পাওয়ার সময়েও জনপ্রিয়তা ছড়িয়ে পড়েছে। উল্লেখ্য ২০১৮ সালে মুক্তি পেয়েছিল কেজিএফ চ্যাপটার ওয়ান তারপর থেকে এই দ্বিতীয় ভাগের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেছিলেন দর্শকেরা। গোটা বিশ্বে এই ছবির জনপ্রিয়তার দারুণভাবে সাড়া ফেলেছিল বক্স অফিসে দারুণ ব্যবসা করেছিল এই ছবি।

ছবির প্রথম ভাগ দর্শকদের এতটাই ভাল লেগেছিল যে দ্বিতীয় ভাগের জন্য মুখিয়ে ছিলেন প্রত্যেকে কেজিএফ চ্যাপটার টু এর চরিত্রগুলো নিয়ে আলোচনা করব। কেজিএফ চ্যাপ্টার ওয়ানের প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন দক্ষিণী সুপারস্টার যশ, এছাড়াও এই ছবিতে অভিনয় করেছেন শ্রীনিধি শেঠি, অর্চনা জয়েস সহ আরও একাধিক অভিনেতা। এই সিনেমায় ভিলেনের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন অভিনেতা রামচন্দ্র রাজু। ভিলেনের চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছিলেন অভিনেতা। এই ছবির হাত ধরেই দর্শক মহলে দারুন জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন তিনি। এরপর তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। একসময় তিনি সুপারস্টার যশ এর বডিগার্ড হিসেবে কাজ করতেন। সেখান থেকে তিনি আজ পরিচিত অভিনেতা।

10 এবং রামচন্দ্র একে অপরকে বহুদিন ধরেই চেনেন একসঙ্গে ছবিতে কাজ করার ইচ্ছে ছিল দুজনের সেটা সম্ভব হয় কেজিএফ এর হাত ধরে। ছবির পরিচালক প্রশান্ত নীল যশের সঙ্গে সিনেমার স্ক্রিপ্ট আলোচনা করার সময় রামচন্দ্র রাজুকে দেখেছিলেন। তারপরেই রামচন্দ্র কে ছিলেন গরুর চরিত্রে অভিনয় করার জন্য বেছে নিয়েছিলেন। এরপর অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে নিজেকে এই চরিত্রের জন্য ফুটিয়ে তোলেন তিনি।

Back to top button