‘আত্মবিশ্বাস ছিল জিতবই’, একটি ফুসফুস নিয়েই করোনাযুদ্ধে জয়ী এই Nurse

শৈশবেই হারিয়েছিলেন একটি ফুসফুস (Lung)। করোনা আক্রান্ত হয়েও কঠিন লড়াই জয় করে বাড়ি ফিরলেন প্রথম সারির যোদ্ধা (Frontline Worker) বছর ৩৯ এর নার্স প্রফুল্লিত পিটার।

মধ্যপ্রদেশের ঘটনা একাধারে অবাক করেছে, আবার বেঁচে থাকার লড়াইয়ের তাগিদও জোগাচ্ছে নেটিজেনদের। ঠিক কী ঘটেছিল? আসুন বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

শৈশবে এক দুর্ঘটনায় অপারেশনে একটি ফুসফুস সরাতে হয় পিটারের। কিন্তু সে সম্পর্কে জানতেন না তিনি নিজে। ২০১৪ সালে বুকে এক্স-রে করার সময় তাঁকে এ ব্যাপারে অবগত করেন চিকিৎসকরা।

মধ্যপ্রদেশের টিকমগড় হাসপাতালের কোভিড ওয়ার্ডের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। সেখানেই করোনা সংক্রমিত হন। একটা ফুসফুস নিয়ে কীভাবে হবে যুদ্ধজয়? আশঙ্কাগ্রস্ত হয়ে পড়েন তাঁর শুভাকাঙ্খীরা।

লড়াইটাও ছিল কঠিন। কিন্তু ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থেকেই সুস্থ হয়ে ওঠেন তিনি। কোনোদিন ভয় পাননি। হোম আইসোলেশনে থেকে নিত্য যোগব্যায়াম, প্রাণায়ম ও শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম করেছেন, জানান পিটার।

এছাড়াও একটা ফুসফুস ভালো রাখতে বেলুনও ফুলিয়েছেন। করোনা ভ্যাকসিনের ২টো ডোজই নিয়েছেন পিটার। জানান, এই মারণরোগ থেকে সুস্থ হবই সে আত্মবিশ্বাস ছিল।

পিটারের এই ঘটনা ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে। বাঁচার আলো দেখছেন বহু স্বাস্থ্যকর্মী থেকে সাধারণ মানুষ।