Story

ঠকিয়েছিলেন দিলীপ কুমার, দীর্ঘ ৬ বছর সম্পর্কের পর বিচ্ছেদ দিলীপ কুমারের সাথে, ৩৬ বছরে প্রয়াত হন মধুবালা, জানুন মধুবালার অসম্পূর্ণ প্রেম কাহিনী

বলিউডের একসময়ের অতিরিক্ত সুন্দরী অভিনেত্রী ছিলেন মধুবালা। এক কথায় যাকে বলে ‘পারফেক্ট’। তার রূপে ও গুণে মুগ্ধ ছিলেন সকলেই। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই মানুষের মাঝে নিজের একটা পরিচিতি গড়ে তুলেছিলেন তিনি। তবে মাত্র ৩৬ বছর বয়সে খুব কষ্ট পেয়ে মারা গিয়েছিলেন তিনি। তার এই ছোট্ট জীবনে তিনি ভোগ করেছেন অনেক কষ্ট। শেষের বেশ কয়েকটা বছর তাকে রীতিমত থাকতে হয়েছে অবহেলায়। কর্ম জগতে সাফল্য পেলেও যে কদিন বেঁচেছিলেন নিজের ব্যক্তিগত জীবনে বিশেষ করে প্রেম জীবনে সুখ পাননি অভিনেত্রী।

একসময় দীর্ঘ ছয়বছর ধরে দিলীপ কুমারের সাথে সম্পর্কে ছিলেন মধুবালা। তবে সেইসময় ভালোবাসার বড় হয়ে দাঁড়িয়েছিল ইগো তাই বিচ্ছেদ হয়ে যায় তাদের। দিলীপ কুমারের সাথে বিচ্ছেদের তিন বছর পর ১৯৬০’এ চোর কুমারের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন অভিনেত্রী মধুবালা (মমতাজ জাহান বেগম দেহলভী)।

জীবনের শেষ সময়টা কাউকেই কাছে পাননি তিনি। কিশোর কুমার মধুবালাকে বিশেষ সময় দিতেন না। যার জন্য তাদের ব্যক্তিগত সম্পর্কে ফাটল ধরেছিল। বলাই বাহুল্য, তার জীবনের প্রেমকাহিনী হার মানাতে পারে যেকোনো গল্পকেও। একটা সময় অভিনেত্রী মানসিক ও শারীরিকভাবে একেবারে ভেঙে পরেছিলেন। তার শারীরিক স্বাস্থ্যের এতটাই অবনতি ঘটেছিল যে শোনা যায়, দীর্ঘ নয়বছর শয্যাশায়ী ছিলেন তিনি।

তবে মৃত্যুর দিন পর্যন্ত তার বাঁচার ইচ্ছে ছিল। তিনি আরো বহুদিন বাঁচতে চেয়েছিলেন ভালোভাবে। কিন্তু মাত্র ৩৬ বছর বয়সেই ভীষণ বেদনাদায়ক মৃত্যু হয়েছিল মধুবালার। তার প্রয়াণে কেঁদেছিল তার অগণিত অনুরাগীরা। পর্দার সামনে তার প্রেমকাহিনী মানুষের মন জয় করলেও শেষপর্যন্ত তার ব্যক্তিগত জীবনের প্রেমকাহিনী যে একেবারেই সুখকর ছিল না, তা বলাই যায়।

Back to top button