বাংলা সিরিয়াল

ব্যাকগ্রাউন্ডে বাজছে পিয়া রে গান! ‘ধূলোকণা’ ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই একের পর এক ট্রোল, সমালোচনা হয়ে চলেছে ধারাবাহিক কে নিয়ে

কিছুদিন আগেই বেঙ্গল টপার হয়ে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল স্টার জলসার ধূলোকণা ধারাবাহিক। দর্শকেরা ভাবতেই পারিনি এরকমভাবে পেছনের দিক থেকে হঠাৎ করে প্রথম স্থানে উঠে আসবে ধুলোকনা। আসলে সবটাই ধারাবাহিকের টুইস্টের দ্বারা সম্ভব হয়েছে। কিন্তু বর্তমানে এই ধারাবাহিকে আর সহ্য করতে পারছেনা দর্শকেরা। অনেকেই চাইছে এবার এই ধূলোকণা ধারাবাহিক বন্ধ হোক। ধারাবাহিকের কোন ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হলে সেই ভিডিওর কমেন্ট বক্সে নিন্দার বন্যা বয়ে যাচ্ছে।

ইতিমধ্যেই ধারাবাহিকের লালন এবং চড়ুইয়ের বিয়ে হয়ে গিয়েছে। আর বিয়ের পর থেকেই ফুলঝুরি ন্যাকামো দর্শকের কাছে দিনদিন অসহ্য হয়ে উঠছে। সকলের দাবি ফুলঝুরি নিজের ইচ্ছেতে লালনকে বিয়ে করেনি আর এখন বিয়ের পর লালনের কাছে ছুটে ছুটে যাচ্ছে সে। লালনের কষ্টে ফুলঝুড়ির কষ্ট হচ্ছে লালন না খেলে খাচ্ছে না এই ধরনের অতিরিক্ত ন্যাকামি আর পোষাচ্ছে না দর্শকদের।

ফুলঝুরি একরকম ভালোমানুষি সেজেই লালনকে বিয়ে করেনি। কিন্তু দুজন দুজনকে তো এখনও ভালবাসে। তাই ঝগরা খুনসুটি লেগেই রয়েছে। যদিও ফুলঝুরি এখন ওই বাড়ির মেয়ে তার আসল পরিচয় ইতিমধ্যে সামনে এসে যায়। কিন্তু লালন এখনো ড্রাইভারি রয়ে গেছে। বাড়ির ড্রাইভার এর সঙ্গে বাড়ির মেয়ে এই ধরনের ন্যাকামি একেবারে সহ্য করতে পারছে না দর্শক।

আর এরই মধ্যে সামনে এসেছে ধারাবাহিকের একটি নতুন প্রোমো ভিডিও। আগামীদিনে ধারাবাহিকের মহা সপ্তাহ দেখান হতে চলেছে। প্রমো ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে যে রাস্তার মাঝখানে গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে লালন এবং ফুলঝুরি ঝগড়া করছে। আর ঠিক তখনই একদল গুন্ডা এসে ফুলঝুরি কে অপহরণ করে নিয়ে যায়। আর ফুলঝুরি কে বাঁচাতে গিয়ে লালনের মাথা ফেটে যায়। আর এই প্রমো ভিডিও দেখে দর্শক হেসে লুটোপুটি। তারা বলছে দিনদিন পরকীয়া বেড়েই চলেছে ধারাবাহিক গুলিতে। বিয়ে করেছে আরেকজনকে ভালোবাসে অন্য আরেকজনকে। কত দিন ধরে চলবে আর এই সমস্ত ন্যাকামি।

Back to top button