Story

‘মা ছিল আমার রোল মডেল’, অভিনেত্রীর ঐন্দ্রিলার মতো তার মা ও ছিলেন একজন ক্যান্সার পেশেন্ট, মায়ের কাছ থেকেই তিনি পেয়েছিলেন মারণ রোগের সঙ্গে লড়াই করার শক্তি

গত ২০ শে নভেম্বর মাত্র ২৪ বছর বয়সেই সকলকে কাঁদিয়ে পরিবারকে একা করে দিয়ে চিরনিদ্রায় চলে গেলেন জনপ্রিয় টেলি অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা। চলে গিয়ে যেন রেখে গেলেন তার ক্যান্সার জয়ের গল্প, হাজার হাজার মানুষের বুকে অনুপ্রেরণা যুগিয়েছিলেন তিনি। তবে শেষ বার ব্রেন স্টোক যেন তাকে আর বাঁচতে দিল না।

টানা কুড়ি দিন অসহ্য যন্ত্রণার মধ্যে দিয়ে গিয়েছিলেন। লড়াই করেছিলেন আপ্রাণ কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। অভিনেত্রীর অকাল মৃত্যুতে এখনো শোকাহত গোটা বাংলার মানুষ। তাই মৃত্যুর পর ভাইরাল হয়েছে তার পুরনো একাধিক ভিডিও। সেরকমই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সম্প্রতি। ভিডিওটি তার প্রথমবার দিদি নাম্বার এ আসার ভিডিও।

ভিডিওটি আজ থেকে বেশ কয়েক বছর পুরনো। তখনো অভিনেত্রী টেলিভিশন জগতের সঙ্গে যুক্ত হননি। একজন সাধারণ প্রতিযোগী হিসেবে দিদি নাম্বার ওয়ান এর মঞ্চে এসেছিলেন তিনি। এরপরেও অবশ্য বেশ কয়েকবার অভিনেত্রীকে দিন নাম্বার ওয়ান এর মঞ্চে দেখা গিয়েছিল।

সেলিব্রেটি থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ প্রত্যেকেই উপস্থিত থাকে এই মঞ্চে নিজেদের জীবনের বিভিন্ন গল্প নিয়ে। ঐন্দ্রিলা নিজের প্রথমবার ক্যান্সারের হবার গল্প নিয়ে উপস্থিত ছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন তার মা ও ছিলেন একজন ক্যান্সার পেসেন্ট।

ভাইরাল ভিডিওতে জানা গিয়েছে প্রথমবার ক্যান্সার কে হারিয়ে জয়ী হয়ে ফিরে এসেছেন নতুন জীবনে। তখন কেমোথেরাপির কারণে তার চুলও ছিল ছোট ছোট। সদ্য চুল গজাচ্ছিল। রচনা ব্যানার্জি জানিয়েছিলেন তাকে এই ছোট চুলে বেশ মিষ্টি লাগছে।

কথায় কথায় অভিনেত্রী জানান তার মাও ছিলেন একজন ক্যান্সার পেশেন্ট। একদম লাস্ট স্টেজে গিয়ে তার মায়ের ক্যান্সার ধরা পড়ে। পেশায় ঐন্দ্রিলার মা ছিলেন একজন নার্স। তিনিও ক্যান্সার কে হারিয়ে ফিরে এসেছিলেন জীবনের মূল মঞ্চে। তার মা ছিল ঐন্দ্রিলার রোল মডেল।

Back to top button