Story

বাপ্পি লাহিড়ীর কাছে কত সোনা আছে? কোটি কোটি টাকা মূল্যের সোনা, বাপ্পি লাহিড়ীর পর কে হবে এই বিপুল পরিমাণ সোনার মালিক?

মাত্র ৬৯ বছর বয়সেই অকাল প্রয়াণ হলো জনপ্রিয় কিংবদন্তি বাপ্পি লাহিড়ী। এ যেনো সঙ্গীত জগতের এক বিরাট বড় ক্ষতি। তিনি শুধুমাত্র তার গানের জন্য নয়, বরং তার পোশাক আশাক, ফ্যাশন নিয়েও চর্চায় থাকতেন। আর সোনা ছাড়া বাপ্পি লাহিড়ী যেনো এক্কেবারে বেমানান। সবসময় তার সারা শরীর সোনায় মোড়া থাকতো। তিনি ছোটো থেকেই পাশ্চাত্য সঙ্গীতের ভক্ত। মাত্র ৯ বছর বয়সেই বাপ্পি লাহিড়ীর তবলা পিয়ানো ড্রাম বাজানোর শিক্ষা শুরু হয়ে যায়।

সোনা কে নিজের সৌভাগ্যের প্রতীক মনে করতেন তিনি। তাই যখনই তার কোনো গান বা অ্যালবাম হিট হতো তিনি সোনা কিনে নিতেন। এভাবেই তার কাছে একের পর এক সোনা জমতে থাকে। আর মৃত্যুর আগে পর্যন্ত বাপ্পি লাহিড়ীর কাছে মোট ৭৫৪ গ্রাম সোনা জমেছিল। এক গয়না তিনি কখনোই দ্বিতীয়বার পড়তেন না। তার জামা কাপড়ের সাথে সাথে সোনার গয়নাও পাল্টাত। তার গলায় মোট ৮ টি সোনার চেইন থাকতো আর দুই হাতের প্রতি আঙ্গুলে আংটি থাকতো। সূত্রের খবরে জানা যায় তিনি নিজের গয়নার যত্ন নিজেই করতেন, অন্য কেউ সেটা করুন তা তিনি মোটেই পছন্দ করতেন না।

২০১৪ সালে বাপ্পি লাহিড়ী রাজনৈতিক ময়দানে নামেন। ভারতীয় জনতা পার্টি হয়ে তিনি শ্রীরামপুর লোকসভার কেন্দ্রের ভোট দাঁড়ান। সেখানেই তিনি তার জমানো মোট সোনার পরিমাণের কথা বলেন। তবে এখন এটা শুনে অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগতে পারে বর্তমানে সঙ্গীত শিল্পীর মৃত্যুর পর এই বিপুল সম্পত্তির মালিক কে হবে?

বাপ্পি লাহিড়ীর দুই সন্তান রিমা এবং বাপ্পা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে তারা দুজনেই তার বাবার সংগ্রহ সোনা যত্ন করে সংরক্ষণ করে রাখবেন। বাপ্পি লাহিড়ী বেচেঁ থাকা অবস্থায় যেরকম সুন্দর করে যত্নে রাখতেন তেমনই থাকবে। ভবিষ্যতে বাপ্পি লাহিড়ীর স্মরণে কোনো সংগ্রহশালায় এগুলো রাখা হতে পারে।

Back to top button