Story

বিচ্ছেদ হয়ে গেলেও দুই প্রাক্তন স্ত্রীয়ের বাড়ি রাতে যান আমির খান! ভালোবাসা থেকেই এখনো টান রয়ে গেছে প্রাক্তন স্ত্রীদের প্রতি, নিজের মুখে স্বীকার করলেন আমির খান

আমির খান, বলিউডের প্রথম সারির অভিনেতাদের মধ্যে অন্যতম আমির। দীর্ঘ কয়েক শতক ধরেই তিনি বলিউড ইন্ডাস্ট্রি মাতিয়ে রেখেছেন নিজের অভিনয়ের দক্ষতার মাধ্যমে। নিজের অভিনয় জীবনে তিনি একজন সফল অভিনেতা। তবে বাস্তব জীবনে একজন সফল জীবনসঙ্গী হতে ব্যর্থ তিনি এমনটি দাবি নেটিজেনদের। নিজের বাস্তব জীবন নিয়ে বরাবরই নেটিজেনদের প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে তাকে। ১৯৮৬ সালে যখন প্রথম ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ শুরু করেছিলেন আমির। তখন তার জীবনে সাফল্য আসেনি। সেই সময়ে পরিচালক রিনা দত্তের সঙ্গে সাতপাকে বাঁধা পড়েন তিনি। তবে সেই সম্পর্ক বেশিদিন টেকেনি কয়েক বছর যেতে না যেতেই বৈবাহিক সম্পর্কের অবসান ঘটান। বর্তমানে রিনা এবং আমিরের দুই সন্তান রয়েছে জুনেইদ ও ইরা। এরপর এই অভিনেতা প্রেমে পড়েন তার লাগান ছবির সহ পরিচালক কিরণ রাওয়ের।

২০০৫ সালে কিরণ রাও এর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন আমির খান। সারোগেসি পদ্ধতির মাধ্যমে পুত্র সন্তান আজাদের জন্ম দেন তারা। কিন্তু সেই সম্পর্কও গত বছর ভেঙেছে। জানা গিয়েছে দুজনের সহমত নিয়েই আলাদা হয়েছেন দুজন। তবে সন্তানের প্রতি দায়িত্ব সমানভাবেই দুজনে পালন করবেন বলে জানিয়েছেন সংবাদ মাধ্যমে। কিন্তু বিচ্ছেদের পরেও দুই প্রাক্তন স্ত্রীর সঙ্গে সমানভাবে দেখা-সাক্ষাৎ এবং কথাবার্তা হয় আমিরের।

সম্প্রতি হিন্দি ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো কফি উইথ করণ এ এসে আমির খান স্পষ্ট জানান “এখনও দু’জনের প্রতিই আমার ভালবাসা ও সম্মান রয়েছে। আমরা আজীবন পরিবার হিসেবেই থাকব। যতোই ব্যস্ত থাকি না কেন প্রতি সপ্তাহে একবার অন্তত ওঁদের সঙ্গে দেখা করি।” উল্লেখ্য আগামী ১১ ই আগস্ট মুক্তি পাচ্ছে আমির খানের পরবর্তী ছবির ‘লাল সিং চাড্ডা’ যেখানে প্রযোজকের দায়িত্ব রয়েছেন আমির খানের প্রাক্তন স্ত্রী কিরণ রাও।

বিচ্ছেদ হবার পরেও একাধিকবার ক্যামেরার সামনে হাসিমুখে ধরা দিয়েছিলেন আমির খান এবং কিরণ রাও। এছাড়াও কয়েকদিন আগেই গিয়েছে আমির খানের বড় মেয়ে ইরার জন্মদিন। সেখানে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল রিনা দত্তকে, সকলে মিলে একসঙ্গে মেয়ের জন্মদিন পালন করেছিলেন। উপস্থিত ছিলেন অভিনেত্রী ফাতেমা সানা শেখও। যাকে নিয়ে গুঞ্জন এর শেষ নেই। আমির খানের দ্বিতীয় স্ত্রী কিরণ রাও এর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ফাতেমা সানা শেখের সঙ্গে আমির খানের সম্পর্কে নিয়ে গুঞ্জন উঠেছিল। তবে তা এখনো অব্দি গুঞ্জনই রয়েছে। সত্যতা প্রমাণ হয়নি এই ঘটনার।

Back to top button