“আমার size-এর mask তো কেউ বানায় না৷” অভিমান রাজের ছেলে ইউভানের

“আপনারা কি কেউ বলতে পারবেন যে এই covid-19 -এর vaccine কবে আসবে?”—এই প্রশ্ন কে করল জানেন? ছোট্ট ছেলে ইউভান৷ পরিচালক রাজ চক্রবর্তী ও শুভশ্রীর একমাত্র সন্তান ইউভান৷ চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে এই করোনা আবহেই জন্ম হয় ইউভানের৷

জন্মের পর থেকেই তাকে নিয়ে খুশির অন্ত ছিলো না চক্রবর্তী পরিবারে৷ ঠিক তার আগেই করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন রাজ চক্রবর্তী এবং তার বাবা৷ দুর্ভাগ্যবশত নাতির মুখ দেখে যেতে পারেননি রাজের বাবা৷ কিন্তু পাশাপাশি ইউভানের আগমন পরিবারে এনে দিয়েছিল আনন্দের জোয়ার৷

ছোট্ট ইউভানের ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়াতেও,তাকে নিয়ে শুরু হয় হইহই৷ ইউভানের একমাস পূর্ণ হওয়ার দিন সকালেই রাজ চক্রবর্তী নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যাণ্ডেলে শেয়ার করেন ছেলের ছবি,কমেন্ট সেকশনে উপচে পড়ে ইউভানের জন্য আদর আর ভালোবাসা৷ করোনা আবহে এই মুহুর্তে আতঙ্কিত গোটা বিশ্ব,প্রতিনিয়ত চলছে মৃত্যুমিছিল৷ ভারতের পরিস্থিতিও ব্যতিক্রমী নয়৷ গ্রাফ কখনও ওপরে,কখনও নীচে৷

এই সময়ে দাঁড়িয়ে সকলের মুখে একটাই প্রশ্ন “ভ্যাকসিন কবে আসবে?” আর এই গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নটি এবার শোনা গেল ইউভানের মুখে৷ শনিবার সকালে রাজ চক্রবর্তী তার ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট করেন,পোস্টটিতে দেখা যাচ্ছে ছোট্ট ইউভান কোলে আর তাকিয়ে আছে ক্যামেরার দিকে৷ ক্যাপশনে তার বাবা লেখেন , “আমি তো বাড়ি থেকে bore হয়ে গেছি,একটু বেরোতে চাই৷”

ইউভানের ছোট মুখের জন্যও কেউ মাস্ক বানায় না তা নিয়েও অভিমান তার৷ ছবিতে ইউভানের চোখেমুখে ভালো না লাগা ছড়িয়ে আছে যেন৷ করোনা আবহে ইউভানকে রাখতে হচ্ছে বাড়িতেই৷ ফলে সেও যেন হাঁপিয়ে উঠছে৷

তারও একটাই প্রশ্ন , “কবে আসবে করোনারা ভ্যাকসিন?”
রাজ চক্রবর্তীর এই পোস্টে ইতিমধ্যে পড়েছে অনেক লাইক আর কমেন্ট সেকশনে অনুরাগীরা জানিয়েছেন ইউভানের প্রতি অনেক ভালোবাসা,অনেকে ছোট্ট ইউভানের ভবিষ্যতজীবনের জন্য করেছেন আর্শীবাদ৷