টলিউড

‘নিজের সন্তানের ভবিষ্যত অন্ধকারে ঠেলে দেবেন না’, নুসরাতের বেবি বাম্প প্রসঙ্গে এবার মুখ খুললেন বাংলার ক্রাশ অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার

অভিনেত্রী নুসরাত, নিখিল জৈনর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেও বিয়ের কিছুদিন পর অভিনেত্রী স্পষ্ট জানিয়ে দেন স্বামী নিখিল জৈন তার সহবাসী সঙ্গী মাত্র। তবে ইতিমধ্যেই প্রকাশ্যে এসেছে অভিনেত্রীর বেবি বাম্পের ছবি। তবে নুসরাতের অনাগত সন্তান নিখিল জৈনর নয় তা ব্যবসায়ী স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছেন।

অভিনেত্রীর বিয়ের বেশ কিছুদিন পর থেকেই শোনা যাচ্ছিল, অভিনেত্রী নুসরাত জাহান এবং অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত একসঙ্গে থাকছেন। কাজেই নেটিজেনরা দুইয়ে দুইয়ে চার করে নিয়েছেন। তবে নেটিজেনদের এই সহজ ধারণা ভেঙে অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত বলে বসেছেন, “আমি কারো সন্তানের বাবা নই।” এই নিয়ে তোলপাড় হয়ে গেছে সোশ্যাল মিডিয়া। তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়েছে অভিনেত্রীর ব্যক্তিগত জীবন।

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসেই অভিনেত্রীর কোল আলো করে আসতে চলেছে তার সন্তান। দিন দিন বেড়েই চলেছে অভিনেত্রীর মাতৃত্বকালীন জেল্লা।

এত সমালোচনার মধ্যেই বন্ধুত্ব বিচ্ছেদ করেছেন অভিনেত্রীর প্রিয় বন্ধু মিমিও। তবে এখন নতুন বন্ধুত্ব হয়েছে অভিনেত্রীর। ইদানিং অভিনেত্রীকে তনুশ্রী ও শ্রাবন্তী র সাথে দেখা যাচ্ছে। এবার নুসরাতের বেবি প্রসঙ্গে মুখ খুললেন অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার। তিনি জানিয়েছেন, “নিঃসন্দেহে নুসরত একজন সাহসী এবং সাহসী পদক্ষেপ নিয়েছেন।

অন্তঃসত্ত্বাকালীন পিরিয়ড চলাকালীন তিনি আরো সুন্দর হয়েছেন, সিঙ্গেল মাদার হয়ে থাকার জন্য তার কোনো অফিসিয়াল স্টেটমেন্ট দরকার নেই। এটা তার জীবন,তাই তিনি জাজ করার কেউ নই। তবে, ভারতে বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গে এখনও এতটা উদার হযনি যে এই বিষয়কে স্বাগত জানাবে, তবে তিনি যদি কখনো অন্তঃসত্ত্বা হন তাহলে আনন্দের সঙ্গে৷ সন্তানের পিতার নাম জানাবেন। তিনি নিজের সাহসী পদক্ষেপের জন্য নিজের সন্তানের ভবিষ্যত ক্ষতির মুখে ঠেলে দেবেন না।”

অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার ও অভিনেত্রী নুসরাত জাহানের একমাত্র যোগাযোগের কারণ হলো অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত। যশ দাশগুপ্ত অভিনেত্রী মধুমিতার সাথে রিল লাইফে জড়িত ছিলেন, অভিনেত্রী নুসরাত জাহান এর সাথে রিয়েল লাইফের সাথে জড়িত।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Calcutta Times (@calcuttatimes)

Back to top button