আতঙ্ক নয় কঠিন সময়ে সবাইকে সবার পাশে দাঁড়ানোর পরামর্শ দিলেন ঋতুপর্ণা, সাথে করলেন বিশেষ শিশুদের টিকাকরণের ব্যবস্থা

ভারতে দিন দিন করোনা আক্রান্ত বেড়েই চলেছে , কোথাও শেষ হয়ে আসছে অক্সিজেন আবার কোথাও মিলছে না সঠিক ওষুধ। বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে মানুষের জীবন। অন্যান্য রাজ্যের মতনই পশ্চিমবঙ্গের অবস্থাও খুব একটা ভালো নয়।

অতিরিক্ত সংক্রামণের কারণে রাজ্যে ঘোষিত হয়েছে দুই সপ্তাহের লকডাউন। ঠিক এরই মধ্যে বিভিন্নভাবে মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসছেন বহু তারকা। নিজের যথাসাধ্য চেষ্টা করে সাহায্য পৌঁছে দিচ্ছে অসহায়ের কাছে।

ঠিক এমনি এক নজির গড়লেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। বিশেষ শিশুদের জন্য টিকাকরণের ব্যবস্থা করলেন অভিনেত্রী। “করোনায় প্রত্যেকটি মানুষ কোনও না কোনোভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন, কেউ কাজ হারাচ্ছেন আবার কেউ প্রিয়জন।

বড্ডো কঠিন সময় এসে উপস্থিত হয়েছে আমাদের সামনে। ভয় করে নয় বরং অসহায়ের পাশে দাঁড়িয়ে এই কঠিন পরিস্থিতির সঙ্গে মোকাবিলা করতে হবে।” অভিনেত্রী আরো বলেন, “সাধারণ শিশুদের তুলনায় বিশেষ শিশুদের করোনা আক্রান্ত হবার আশঙ্কা অনেক বেশি, তাই তাদের সুরক্ষিত রাখা অতন্ত জরুরি।”

ঋতুপর্ণা বহুদিন ধরেই “প্রয়াস” নামক একটি সংস্থার সাথে জড়িত। এই সংস্থা বিশেষ শিশুদের জন্যই গড়ে উঠেছে। সমাজের বিভিন্ন পর্যায়ের বিশেষ শিশুদের নিয়ে অভিযান চালায় এই সংস্থা।

শহরের কথা বলাতে অভিনেত্রী উদ্বিগ্ন্নতার সাথে বলেন, “চিন্তা তো অব্যশই হয়, আমার মাও কলকাতায় রয়েছেন একা, বয়েস হয়েছে শরীর মন কোনো কিছুই ভালো নেই।” তাও মনে আস্থা রেখে বলেন, “নিশ্চই ভালো দিন অপেক্ষা করছে আমাদের সামনে।”

কিছুদিন আগেই অভিনেত্রী করোনা আক্রান্তদের জন্য “কিচেন ফর অল” নাম একটি পরিকল্পনা চালু করেন। যেখানে প্রায় ৩৫০জন করোনা আক্রান্তদের কাছে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন।

তার সহযোগিতায় বহু মানুষ এগিয়ে এসেছেন তারাই সমস্ত ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন। ঠিক এইভাবেই অভিনেত্রীও আরো মানুষদের এগিয়ে আসার অনুরোধ জানিয়ে বলেছেন, “আতঙ্ক নয় সচেতন হয়ে এগিয়ে আসুন, এখন মানুষের অস্তিত্ব বজায় রাখার এটি একমাত্র উপায়।”