বলিউড

ক্ষমতাশালীদের ষড়যন্ত্রে ধ্বংস কেরিয়ার, প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত এর সঙ্গে নিজের জীবনের মিল খুঁজে পান বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা বিবেক ওবরয়

বর্তমান সময়ে সবসময় সব জায়গাতেই ইঁদুর দৌড় চলছে। সেটা পড়াশোনা হোক বা কাজের জায়গা। আমরা দর্শকেরা টেলিভিশনের এপার থেকে অভিনেতা অভিনেত্রীদের দেখি তারা প্রত্যেকেই মনে করি তাদের জীবন হয়তো খুবই সহজ। তবে একেবারেই এমনটা নয় একটা প্রজেক্ট শেষ হতে হতে তাদের পরবর্তী প্রজেক্ট কবে হাতে আসবে সেটার জন্য অপেক্ষা করে থাকতে হয়।

বেশ কিছু অভিনেতা অভিনেত্রীকে তো বছরের পর বছর ধরে অপেক্ষা করতে হয় তাদের পরবর্তী কাজের জন্য। পরিচালক প্রযোজকদের দুয়ারে দুয়ারে ঘুরে বেড়াতে হয়। অভিনেতা বিবেক ওবেরয়ের জীবনও ঠিক এমনটাই হয়েছিল। তাকে একসময় প্রচুর বাধা-বিপত্তির মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে। এমনকি হিট ছবিতে অভিনয় করার পরেও বছরের পর বছর অপেক্ষা করে থাকতে হয়েছে পরবর্তী কাজের জন্য।

সালমান খানের সঙ্গে বিবেক ওবরয়ের শত্রুতার কথা কারোরই অজানা নয়, সালমান খানকে ছেড়ে বিবেকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে ছিলেন বিশ্ব সুন্দরী ঐশ্বর্য রাই। আর সেই কারণেই বিবেকের ওপর রাগ ছিল সালমান খানের। এমনকি বলিউডের তার কেরিয়ার নষ্ট করে দেওয়ারও চেষ্টা করেছিলেন ভাইজান। এক সাক্ষাৎকার এই বিবেককে বলতে শোনা গিয়েছিল কিছু ক্ষমতাশীল ব্যক্তি তার সাফল্যের পথে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে, বারবার তাকে আটকানোর চেষ্টা করেছে।

সাক্ষাৎকারে সরাসরি কারো নাম না নিয়ে তিনি বলেছিলেনশুটআউট অ্যান্ড লোখন্ডওয়ালা ছবিটি হিট হওয়ার পরেও প্রায় দেড় বছর কোনো কাজ ছিল না বিবেকের কাছে। বিবেক বলেন, ‘বলিউড অত‍্যন্ত নিষ্ঠুর একটা জায়গা যা আপনাকে ধ্বংস করে ফেলবে।’ নিজের স্ত্রী, পরিবারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ওদের প্রার্থনাই আমাকে বাঁচিয়ে রেখেছিল। নয়তো আমি হাল ছেড়েই দিয়েছিলাম। চারপাশে এত নেতিবাচকতা আমাকে বিষন্ন করে তুলেছিল। আর হয়তো সেটাই ওদের উদ্দেশ‍্য ছিল, মানসিক ভাবে ভেঙে দেওয়া।’

এছাড়াও সুশান্ত সিং রাজপুত এর মৃত্যুর পর তিনি জানিয়েছিলেন সুশান্তের সঙ্গে তার জীবনের অসম্ভব মিল রয়েছে। তিনিও একসময় মানসিক অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েছিলেন। ট্রমার মধ্যে দিয়ে যেত তার প্রতিটা দিন। কিন্তু মনের আত্মবিশ্বাস এবং কাছের মানুষদের সাপোর্ট তাকে হেরে যেতে দেয়নি।

এই সময় তার স্ত্রী তার পাশে থেকে তাকে সাপোর্ট করেছে। তাই নিজের স্ত্রী প্রিয়াংকাকে বারবার ধন্যবাদ জানায় বিবেক। বিবেককে শেষবার দেখা গিয়েছে ‘ধারাভি ব‍্যাঙ্ক’ ওয়েব সিরিজে। তিনি ছাড়াও ওই সিরিজে ছিলেন সুনীল শেট্টি এবং সোনালি কুলকার্নি। আগামীতে রোহিত শেট্টির ডেবিউ OTT প্রোজেক্ট ইন্ডিয়ান পুলিস ফোর্স সিরিজে দেখা যাবে বিবেককে।

Back to top button