বলিউড

নিজে হাতে সিন্নি তৈরি করছেন প্রসেনজিৎ! যোগাড় দিচ্ছেন স্ত্রী অর্পিতা, চলুন দেখে নেওয়া যাক কাছের মানুষ বুম্বাদার বাড়িতে লক্ষ্মী পূজোর কি স্পেশালিটি

দুর্গাপুজোর পর বাঙালি মেতে রয়েছে লক্ষ্মী পুজো নিয়ে। তারা দু’বছর পর যাকে লক্ষ্মীপূজো করার মতো সিচুয়েশন তৈরি হয়েছে এই বছর। তার উপরে আবার রবিবার। প্রত্যেক ঘরে ঘরে কর্মজীবী মানুষেরাও উপস্থিত ছিলেন মা লক্ষ্মীর আরাধনায়। আশ্বিন মাসের শুক্লপক্ষে শেষ পূর্ণিমা দিতে কোজাগরীর লক্ষ্মীর আরাধনা করা বাঙালির রক্তে আছে। গতকাল গিয়েছে সেই লক্ষ্মীপুজো। দেবী লক্ষ্মীর আরাধনা শুধু সাধারণ মানুষ নয় মেতে থাকেন চলচ্চিত্র জগতের তারকারাও। তাছাড়াও বছর দুই পরে দেবী লক্ষ্মীর আরাধনা করার সুযোগ পেলে মাতামাতি করা হবে এটা বাড়াবাড়ি কিছু নয়। আবার সেই তারকা যদি হন দর্শকের কাছের মানুষ বুম্বাদা তবে সোশ্যাল মিডিয়ার চর্চা বাড়বে বৈকি। হ্যাঁ ঠিকই ধরেছেন বুম্বাদা নিজে হাতে পুজোর আয়োজন করছেন।

এদিনের ছবিতে অভিনেতাকে দেখতে পাওয়া গেল দুধ সাদা পাঞ্জাবি পরনে তিনি। সাথে আকাশে রঙের ধুতি। অন্যদিকে প্রসেনজিতের শ্রী অর্পিতার পরনে রয়েছে লাল রঙা একটি সুন্দর শাড়ি। দম্পতি নিজেরাই সমস্ত আয়োজন করছেন দেবীর আরাধনার। অর্পিতা নিজের হাতে সাজিয়েছেন আসন। এদিন প্রসেনজিৎকে দেখা গেল নিজে হাতেই সিন্নি তৈরি করছেন তিনি। ময়দা, দুধ, চিনি, রাবড়ি, সন্দেশ, কাজু, কিশমিশের মতো সুস্বাদু উপকরণ দিয়ে মেখেছেন সিন্নি। পুজোগন্ডার দিনে নিজের বুম্বাদা ইমেজ ছেড়ে বেরিয়ে এসে অভিনেতা হয়ে ওঠেন একেবারে ঘরের ছেলে। ঘরোয়া পরিবেশে ঘরের ছেলে হয়ে দেভি লক্ষ্মীর আরাধনা তে মত্ত থাকেন।

শুধু সিন্নিমাখা বলে নয়। অভিনেতা নিজে দাঁড়িয়ে থেকে পূজার সমস্ত আয়োজন দেখেন। নিজেও হাতে হাতে করেন দেবীর আরাধনার আয়োজন। যজ্ঞ দেখেন মা লক্ষ্মীর চরণে পুষ্পাঞ্জলি দেন। শুধু তাই নয় এবারের কভারেজে অভিনেতাকে দেখতে পাওয়া গেল তিনি দীর্ঘক্ষণ দেবী লক্ষ্মীর সামনে জোর হাতে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

তবে শুধু নিজের বাড়ি নয়। অভিনেতা তাঁর নিজের বাড়ির আয়োজন সামলে প্রত্যেক বছর লক্ষ্মী পূজার রাতে বোনের বাড়ি পৌঁছন। বোন পল্লবী দেবী লক্ষ্মীর ভোগ নিজে হাতে রান্না করেন। বোনের হাতের তৈরি খিচুড়ি আর বড়ি ভাজা কখনোই মিস করতে রাজি নন বুম্বাদা। অভিনেতার বোন পল্লবীর কথায়, “সবাই বলে দাদা নাকি খায় না। তবে পছন্দের খাবার হলে কিন্তু গুছিয়ে খায়। যেমন প্রতিবার ভোগ চেখে দেখে ও। আসলে মানুষটা খায়ই কম”!

Back to top button