বলিউড

ভয় পেয়ে গেলো সালমান! ফ্লপ হওয়ার আশঙ্কায় ‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’ ছবির নাম বদলালেন সালমান খান, আবারও নেটিজেনদের বিতর্কের মুখে ভাইজান

‘ভাইজান’ বলিউডের পর্দা কাঁপানো জন্য এই নামটা যথেষ্ট। দীর্ঘ কয়েক শতক ধরে বলিউডের পর্দায় অভিনয় করেছেন সালমান খান। ৫৬ বছর বয়সে এখনো একই রকম ফিট এবং ফাইন অভিনেতা। এখনো একের পর এক ব্লকবাস্টার ছবি করে চলেছেন তিনি। ভক্তদের উপহার দিয়ে চলেছেন একের পর এক ছবি। তার আগামী ছবি কাভি ঈদ কবি দিওয়ালি ছবির শুটিং ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে। আগামী বছর ঈদে মুক্তি পাবে এই ছবি। কিন্তু প্রতিবারের মতো এবছর ভাইজানের ছবি নিয়ে উত্তেজনা নেই দর্শকদের মধ্যে। তার অন্যতম একটি কারণ হলো দক্ষিণের সিনেমাগুলি। বিগত বেশ কয়েকটি বলিউডের ছবি পরপর ফ্লপ হয়েছে শুধুমাত্র এই দক্ষিণ ইন্ডাস্ট্রি ছবিগুলির কারণে। ছবিগুলো দর্শকদের এতটাই আকৃষ্ট করছে যে বলিউডের ছবিগুলির ব্যবসা করতে পারছে না ঠিকমত আর এটিই চিন্তিত হয়ে পড়েছে সালমান খান।

ইতিমধ্যে সালমান খান এই ছবির ফার্স্ট লুক শেয়ার করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায় দর্শকদের সঙ্গে। কিন্তু সেই নিয়েও কোন উত্তেজনা নেই নেটিজেনদের মধ্যে। বরং এই ছবির সামনে আসার পর থেকেই একাধিক বিতর্ক উঠে এসেছে। শোনা গেছে কাস্টিং নিয়ে নাকি মতবিরোধ রয়েছে সকলের মধ্যে। তবে এবারে শোনা যাচ্ছে ছবির নামটাই নাকি পাল্টে দিচ্ছেন সালমান খান। ছবির নাম পাল্টে সালমান খান এই ছবির নতুন নাম নিজের নামে রাখতে চাইছেন। ছবির নাম পরিবর্তন করে সালমান খান ‘ভাইজান’ করতে চাইছেন ছবির নামটি। তবে হঠাৎ কেন এই পরিবর্তন এই নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে। হঠাৎ কেন নিজের নামেই ছবি প্রকাশ করতে চান সালমান খান?

ছবিটি একটি পারিবারিক গল্প যেখানে পরিবারের সকলে তার বড় দাদা কে ভাইজান বলে থাকে। তাই সালমান খান চাই যে এই ছবির নাম পাল্টে ভাইজান রাখা হোক। তবে বলিউডে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে ছবি ফ্লপ হওয়ার ভয়ে নাকি সালমান খান ছবির নাম পাল্টে দিয়েছেন। যেদিন থেকে এই ছবি করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে তবে থেকে একের পর এক বাধা চলে আসে নানান ধরনের সমালোচনা হচ্ছে এই ছবি নিয়ে। ছবির শুটিং শুরু হওয়ার পরে সালমান খানের বোনের বড় আয়ুষ শর্মা ছবি থেকে সরে গিয়েছে। এমনকি প্রযোজনার দায়িত্ত থাকা সাজিদ নাদিয়াদওয়ালাও সরে গিয়েছেন ছবির থেকে। তাই শেষ পর্যন্ত কি হতে চলেছে এই ছবির পরিণতি সেটাই দেখার অপেক্ষায় রয়েছেন নেটিজেনরা।

Back to top button