বলিউড

অহংকার দেখিয়ে ‘দ্যা কাশ্মীর ফাইলস’ এর প্রমোশন করেননি! এবার মিথ্যে বলে টাকা হাতিয়ে জেলে যেতে বসেছেন কপিল শর্মা, দায়ের হল মামলা

আমাদের দেশের অন্যতম জনপ্রিয় কমেডিয়ান হলেন কপিল শর্মা। তার জনপ্রিয়তা আলাদা করে আর কিছুই বলার নেই। দেশের সকল মানুষের কাছে এখন তিনি বেশ পরিচিত। মানুষকে হাসিয়ে নানা রকম জোকস বলে তিনি সবসময় সকলকেই খুশি রাখেন। এমনকি আপনার মন খারাপের সময়ও তার একটি কথা আপনাকে হাসি তুলতে পারে। তবে এবারে এই কমেডিয়ান এর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে এক বিদেশি সংস্থা। মিথ্যে কথা বলে টাকা আদায়ের দায় উঠেছে কপিল শর্মার বিরুদ্ধে।

এই ঘটনাটি আসলে ২০১৫ সালের। সেইসময় কপিল শর্মা নর্থ আমেরিকা ট্যুরের সময় কপিল শর্মাকে ৬টি শোয়ের জন্য পারিশ্রমিক নিয়েছিলেন। কিন্তু তিনি কেবলমাত্র পাঁচটি শো’তে পারফর্ম করেছিলেন। মার্কিন প্রদেশের নিউ জার্সিতে অবস্থিত ওই ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের মালিক অমিত জেটলি। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ঐ সংস্থা কপিল শর্মার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের অভিযোগ জানিয়েছেন। সেই সংস্থা দাবি করছে কাপিল শর্মা নাকি তাদেরকে ক্ষতিপূরণের টাকা ফেরত দিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন কিন্তু আজ অব্দি সেই টাকা ফেরত দেননি।

ওই সংস্থা তরফ থেকে কপিল শর্মা সঙ্গে একাধিক বার যোগাযোগ করা হলো কপিল শর্মা তরফ থেকে কোনরকম উত্তর পাননি তারা। তাই বাধ্য হয়ে এই মামলা দায় করেন ওই সংস্থা। বর্তমানে নর্থ আমেরিকা ট্যুরেই রয়েছেন কপিল শর্মা। তার সঙ্গে রয়েছেন সুমনা চক্রবর্তী, কিকু সারদা, কৃষ্ণা অভিষেক, রাজীব ঠাকুর চন্দন প্রভাকররাও। উল্লেখ্য এটি প্রথম বানায় এর আগে বহুবার কাপিল শর্মা বিরুদ্ধে বিভিন্ন বিতর্কিত মন্তব্য হয়েছে। দ্যা কাশ্মীর ফাইলস ছবি মুক্তির আগে বা পরে কখনোই ছবির টিমকে নিজের শোতে আমন্ত্রণ জানাননি কাপিল শর্মা। যা নিয়ে উঠেছিল নানান ধরনের সমালোচনা। অনেকেই তার বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েছিল। যার জন্যে শো বয়কট করার ডাক ও আসে। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে এখনো মুখ খোলেননি তিনি।

Back to top button