বলিউড

‘ষড়যন্ত্রের শিকার শাহরুখ খান’, মুম্বাইয়ের খ্যাতনামা শিল্পীদের সাথে আলোচনায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী, এবার মুখ খুললেন মমতা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুম্বাই সফরে গিয়েছেন। মুম্বাই সফরের দ্বিতীয় দিনে ওখানকার বিশিষ্টজনদের সাথে আলাপচারিতায় বসলেন তিনি। এই আলাপচারিতা চলেছে ঘন্টাখানেক। এখানেই বিজেপিকে ‘নিষ্ঠুর অগণতান্ত্রিক’ দল বলে উল্লেখ করেছেন মমতা। এমনকি তিনি এও উল্লেখ করেন শাহরুখ খান এক বিশাল ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন।

৩’রা অক্টোবর মাদক কাণ্ডে শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খানকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। প্রায় এক মাস আর্থার রোডের জেলে ছিলেন আরিয়ান। বারবার জামিনের আবেদন করা হলেও তা খারিজ হয়ে যায় সেইসময়ে। পরে তাদের জামিন দেওয়ার সময় বোম্বে হাইকোর্ট জানায়, আরিয়ান খান ও তার দুই সঙ্গী আরবাজ মার্চেন্ট, মুনমুন ধামেচারের বিরুদ্ধে তেমন কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি। তবে গেরুয়া শিবিরের বিরোধীদের মধ্যে অনেকের দাবি আরিয়ান খানকে গ্রেফতার করা এবং তাকে প্রায় এক মাস জেলে আটকে রাখা গেরুয়া শিবিরেরই ষড়যন্ত্র। এই প্রসঙ্গেই মুম্বাইয়ের আলাপচারিতায় মমতা বন্দোপাধ্যায় শাহরুখ খানের ষড়যন্ত্রের শিকার হওয়ার কথা বলেছেন।

এদিনেই আলাপচারিতায় উপস্থিত ছিলেন, জাভেদ আখতার, মহেশ ভাট, স্বরা ভাস্কর, সমাজকর্মী মেধা পাটেকর, শোভা দে, মুনওয়ার ফারুকি-সহ বহু নামিদামী শিল্পীরা। এই সমস্ত বিশিষ্টজনদের সামনেই মমতা বন্দোপাধ্যায় বলেন, ভারত পেশিশক্তি চায় না, তবু সকলকে একটি নিষ্ঠুর অগণতান্ত্রিক দলের মুখোমুখি হতে হচ্ছে। এক্ষেত্রে একজোট হয়ে লড়াই করে জয় হাসিলের কথাও বলেছেন তিনি।

এদিন মহেশ ভাটের উদ্দেশ্যে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, শাহরুখ খানের মতো মহেশ ভাটও ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন। যদি জিততে হয় তাহলে লড়াই করতে হবে এবং নিজেদের কথা সকলের সামনে স্পষ্ট ভাবে জানাতে হবে।

বুধবারের এই আলাপচারিতায় বিশিষ্ট লেখিকা শোভা দে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জিজ্ঞাসা করেন, দেশের যোগ্য প্রধানমন্ত্রী কে? এর উত্তরে মমতা জানিয়েছেন, পরিস্থিতি নির্ধারণ করে দেবে প্রধানমন্ত্রী কে হবে। তবে দেশের প্রধানমন্ত্রী কার হওয়া উচিৎ সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়, দেশের গণতন্ত্রকে রক্ষা করাই মূল বিষয়। তিনি এও বলেন, বাংলা ও মহারাষ্ট্রের সম্পর্ক খুব গভীর। এই প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মারাঠা বীর শিবাজীকে নিয়ে লেখা রবি ঠাকুরের কবিতার কয়েকটা লাইনও উল্লেখ করেন তিনি।

Back to top button