বলিউড

‘লাল সিং চাড্ডা’, বয়কট করতে হবে দাবি একাংশ নেটিজেনদের, নেটিজেনদের সাথে বিতর্ক সৃষ্টি করলেন কন্ট্রোভার্শিয়াল কুইন কঙ্গনা রানাউত

ফের আরো একবার বিতর্ক সৃষ্টি করলেন কঙ্গনা রানাউত। আর এবারে তার নিশানায় রয়েছেন আমির খান। সামনেই আমির খান অভিনীত ছবি ‘লাল সিং চাড্ডা’ মুক্তি পেতে চলেছে তার আগেই আমির খান কে নিয়ে কন্ট্রভারসি তৈরি করলেন কঙ্গনা। ছবি মুক্তির আগে আমির খান বলেছিলেন “ভারত আমারও দেশ। ঘৃণা ছড়াবেন না।” এবারে সেই প্রসঙ্গকেই উস্কে দিলেন কঙ্গনা রানাউত।

প্রসঙ্গত ইতিমধ্যেই একাংশ নেটিজেন লাল সিং চড্ডা ছবির বয়কট এর দাবি করেছেন। প্রশ্ন উঠেছে আমির খানের দেশপ্রেম নিয়ে। কারণ বছর কয়েক আগে আমির খান বলেছিলেন ভয় ঘৃণায় এই দেশ ছাড়ার কথা। তাই একাংশ নেটিজেনদের দাবি এই ছবি বয়কট করতে হবে। আর এই প্রসঙ্গকেই উস্কে দিয়ে কঙ্গনা বলেন “আমার মনে হয়, লাল সিং চাড্ডা নিয়ে যত নেতিবাচক প্রচার হচ্ছে, কিংবা বিতর্কের সৃষ্টি হচ্ছে, সেগুলো আমির খান নিজেই খুব পারদর্শীতার সৃষ্টি করছেন।”

অবশ্য এখানেই শেষ নয় বলিউড বনাম দক্ষিণী সিনেইন্ডাস্ট্রি যুদ্ধের প্রসঙ্গ টেনেও কঙ্গনা বলেন, “একটা কমেডি সিক্যুয়েল ছাড়া এবছর আর কোনও হিন্দি ছবিই ভাল চলেনি। ভারতীয় সংস্কৃতির মজ্জায় এখন শুধু দক্ষিণী সিনেমা ঢুকে গিয়েছে। কিংবা আঞ্চলিক স্বাদে বেশি মেতেছেন দর্শকরা। আর হলিউড ছবির রিমেক তো চলেইনি। যার জেরে এখন এরা ভারতকে অসহ্য বলে মনে করছে। আসলে দর্শকদের নাড়িটা ঠিকঠাক বুঝতে পারছে না হিন্দি সিনেমা। সবার আগে এটা বোঝা দরকার।”

জাতি ধর্ম নিয়ে এর আগেও কঙ্গনা রানাউত আমির খানকে নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি করেছিলেন। তাই এবারেও তার অন্যথা হলো না অভিনেত্রী বলেন “হিন্দু-মুসলিম করে কোনও লাভ নেই। পিকে-র মতো হিন্দুফোবিক সিনেমা বানিয়ে কিংবা ভারতে অসহ্য দেশের তকমা দিয়েও আমির খানের অনেক সিনেমা হিট করেছে। তাই দয়া করে ধর্ম কিংবা দর্শন কপচানো বন্ধ করুন। এঁদের বাজে সিনেমা কিংবা খারাপ অভিনয় এতে করে চাপা পড়ে যাচ্ছে।” তবে এই প্রসঙ্গে আমির খান এখনো কিছু বলেননি। বর্তমানে কঙ্গনা রানাউতের এই সমস্ত মন্তব্য ঘিরেই শোরগোল সোশ্যাল মিডিয়া।

Back to top button