বলিউড

প্রচুর দম আছে রূপঙ্করের! নুসরাতের মতো সালমানের বিগ বসে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিলেন রূপঙ্কর বাগচীও! অর্থাৎ প্রচুর টাকার হাতছানি, কিন্তু সেসবকে পাত্তা না দিয়ে সম্পূর্ণ নাকোচ করলেন প্রস্তাব

বাংলার জনপ্রিয় গায়ক রূপঙ্কর বাগচী নামটি গানের জগতে এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। বর্তমানে বেশ ভালই চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছিলেন গায়ক। তবে অভিনেতার ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে এর আগেও বহু ঘটনা সামনে এসেছে। তেমনই সামনে আসলো আরো একটি ঘটনা। প্রথমেই বলি অভিনেতার কাছে টাকার থেকেও বড় তাঁর পরিবার। আসলে গায়ক রূপঙ্কর বাগচীকে হিন্দি নন-ফিকশন শো বিগ বসের প্রতিযোগী হওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে।

কিন্তু গায়ক সাফ জানিয়ে দিয়েছেন পুজোর সময় তিনি কলকাতাতে আর পরিবারের সাথে সময় কাটাতেই বেশি ভালোবাসে না। যদিও এদিকে আমরা সবাই জানি যে সালমান খানের এই ঘরে প্রবেশ মানেই বিশাল অংকের টাকা অফার করার কথা। কিন্তু সেসব কোন কিছু কি একেবারেই পাত্তা দেননি গায়ক।

এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে গায়ক রূপঙ্কর বাগচী জানান, বিগবস এর কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে তাঁকে পার্টিসিপেট করার জন্য অফার করা হয়েছিল। সেখানে নাকি তিন মাস ঘরবন্দি অবস্থায় থাকতে হবে। এমনকি কোন প্রকার যোগাযোগ রাখা যাবে না পরিবারের সাথেও। কিন্তু গায়কের কথায় এই তিন মাস সময়ের হিসেবে বাঙালির সবথেকে বড় উৎসব দুর্গাপুজো, আর তারপরেই কালীপুজো, লক্ষ্মীপূজো। এসব ছেড়ে কোন বাঙালি কিভাবে ঘরবন্দি অবস্থায় থাকবে। আর তাছাড়াও পুজোর সময়টায় তাঁর কাছে পরিবার ছেড়ে থাকা একেবারেই অসম্ভব বলে জানিয়েছেন গায়ক নিজেই। সবথেকে বড় কথা হল পরিবারের সাথে কোন রকম যোগাযোগ রাখা যাবে না এটা তাঁর কাছে ভাবাই অসম্ভব। গায়ক জানান কখনোই টাকা পরিবারের থেকে বড় হতে পারে না।

প্রসঙ্গত কয়েক মাস আগেই গায়ক রূপঙ্কর জড়িয়ে পড়েছিলেন এক বিতর্কে। বলিউডের জনপ্রিয় গায়ক কেকে কলকাতায় আসেন স্টেজ পারফরম্যান্স করতে। আর তারপরেই রূপঙ্কর একটি ফেসবুক লাইভ করে দর্শকের উদ্দেশ্যে বলেন “কে এই কেকে?” রূপঙ্কর নাকি ন্যাশনাল লেভেলের কেকের যা অবস্থান দেখেছেন তাতে নাকি পশ্চিমবঙ্গে স্তরে যারা গায়ক গায়িকা সফলতা পেয়েছেন তাঁরা অনেক ভালো গান করেন। তাঁদের মধ্যে গায়ক নিজের নাম, সোমলতা, ইমন, অনুপম, রাঘব, রুপম, ক্যাকটাস এর নাম উল্লেখ করেন। কিন্তু শিল্পীদের তরফ থেকে রূপঙ্কর বাগচীকে সমর্থন একেবারেই জানানো হয়নি। প্রথমত এই মন্তব্যে বেশ ভালই জলরোষ তৈরি হয়েছিল।

কিন্তু স্টেজ পারফরমেন্সের পরে কেকের হঠাৎ মৃত্যুতে মানুষের ধৈর্যের বাঁধ যেন আরো ভেঙে যায়। প্রথমত রূপঙ্করের এরূপ অসম্মানমূলক বক্তব্য তাও আবার বিখ্যাত গায়কের বিরুদ্ধে সেটা একেবারেই কাম্য নয় পশ্চিমবঙ্গের তরফ থেকে। পশ্চিমবঙ্গ সম্পূর্ণটাই ভিত্তি করে আছে বাংলা, বাঙালির ওপর আর এই জাতি কোনদিনও কোন শিল্পকে, তাঁর শিল্পীকে অপমান করতে পারেনা। কিন্তু গায়ক নিজে যে একজন বাংলার রাজ্যস্তরিয় গায়ক সে সম্মানীয় জায়গাটুকু তিনি ধরে রাখতে পারেননি। কেকের মৃত্যুতে সমগ্র পশ্চিমবঙ্গ স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল। আর তারপরেই এই বিষয়ের উপর ভিত্তি করেই আরো বড় বিতর্কে জড়ায় গায়ক রুপঙ্কর বাগচী। যদিও এই বিষয়টি এখন অনেকটাই ধামাচাপা পরে গিয়েছে। বলে রাখি বিগবস এর নতুন সিজনে উপস্থিত থাকবেন আমাদের বঙ্গ তনয়া নুসরাত জাহান।

Back to top button