বলিউড

একদিকে বাবার মৃত্যু, অন্যদিকে ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চে দাড়িয়ে গান গাইছে ছেলে বিনীত! “দ্যা শো মাস্ট গো অন” হলেও এই দৃশ্যে মন কাঁদছে বিচারক হিমেশের সাথে দর্শকেরও

‘ইন্ডিয়ান আইডল’ সোনি টেলিভিশনের এক জাঁকজমকপূর্ণ রিয়েলিটি শো। দীর্ঘ অনেক বছর ধরে চলে এসেছে এই অনুষ্ঠান, অনেক বলিউডের নামকরা প্লেব্যাক গায়ক গায়িকারা উঠেছেন এই অনুষ্ঠান থেকেই, অরিজিৎ সিং-ও এখান থেকেই জনপ্রিয়তা পেতে শুরু করেছিলেন। ২০২২ সালে ইন্ডিয়ান আইডলের তেরো তম সিজন শুরু হয়। এখানে এক প্রতিযোগী বিনীত সিং-এর নতুন গাওয়া গানটি প্রচুর ভাইরাল হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

নেহা কক্কর প্রতিযোগীদের কাহিনী শুনে সহজে কেঁদে ফেলার জন্য সবসময়ই ট্রোল হয়ে থাকেন। তবে এবারের এপিসোডে নেহা সহ শো-এর আর এক বিচারক হিমেশ রেশমিয়াও কেঁদে ফেলেছেন। কেঁদে ফেলেছেন বিশেষ অতিথি সোনাক্ষী সিনহা ও হুমা কুরেশিও। শো-এর সঞ্চালক থেকে শুরু করে অন্যান্য প্রতিযোগীদেরও চলে এসেছিল চোখে জল। বিনীত ‘আভি মুঝ মে কহি/ বাকি থোরি সি হে জিন্দেগি’ গানটি গান এপিসোডে, চার দিন আগে বাবাকে হারিয়ে নিজেকে শক্ত করে ধরে স্টেজে এসে এতগুলো জনতার সামনে পারফর্ম করা চারটি খানি ব্যাপার না! দর্শকরাও তাই মনে করেন।

গান শেষে কান্নায় ভেঙে পড়েন বিনীত নিজেই, তাকে সামলাতে মঞ্চে প্রায় সকলেই চলে আসেন, ঘিরে ধরেন তাকে। শনু নিগমের এই গানটি খুব কঠিন হলেও নিখুঁত গেয়েছেন বিনীত বলে জানিয়েছেন বিচারকেরা। কমেন্ট বক্সও ভরে উঠেছে বিনীতের প্রশংসায়। বিনীতের পিতার আত্মার শান্তি কামনা করতেও দেখা গেছে অনেক দর্শককে, টিভির সামনে বসে তাদের চোখও ছলছল করেছে বলেও জানান।

অনেকে এই রিয়েলিটি শো-কে ফেক বা নকল বলে থাকেন। এখানেও তেমন মন্তব্য করেছেন কিছু দর্শক, তারা বলেন শো-য়ের স্ক্রিপ্ট বাড়াতে এমন করে থাকেন এই বড় বড় রিয়েলিটি শো-য়ের প্রযোজক পরিচালকরা‌। তবে একথা মানতে নারাজ দর্শকদের অধিকাংশ। পিতা মাতার মৃত্যু নিয়ে যদি শো-য়ের স্ক্রিপ্ট লেখা হয়ে থাকে তবে তা নিন্দনীয়, তবে কোনো‌ প্রমাণ ছাড়া এত বড় অভিযোগ মেনে নিতে চাননা সঙ্গীত প্রেমীরা।

Back to top button