বলিউড

বেশি সালমান খান কে নিয়ে লাফাতে গিয়ে পুলিশের হাতে মার খেল সাধারণ ভক্তরা, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

আমাদের বলিউড ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম এলিজেবেল ব্যাচেলর হলেন ভাইজান অর্থাৎ সালমান খান। এই বছর ২৭শে ডিসেম্বর ৫৭ বছরে পা রাখলেন তিনি। আর ভাইজানের জন্মদিন মানেই ভক্তদের মাতামাতি, হইহুল্লোড়, সেলিব্রেশন। আর সেই সেলিব্রেশন করতে গিয়েই ভক্তদের দিতে হলো খেসারত। নিজেদের প্রিয় অভিনেতার প্রতি ভালোবাসা দেখাতে গিয়ে পুলিশের লাঠির বাড়ি খেলেন তারা।

ভাইজান কে নিয়ে হামেশাই যেই কথাটা আমরা শুনে থাকি বা তিনি যেই বিষয়টির জন্য সবচেয়ে বেশি চর্চায় থাকেন তা হলো অভিনেতার বিবাহ। ৫৭ বছর বয়স হয়ে গেল এখনো অবধি বিয়ের পিঁড়িতে বসেনি ভাইজান। একাধিক প্রেম করলেও তার কোনোটাই বিয়ের মন্ডপ অবধি গড়ায়নি। সম্প্রতি ভাইজানের জন্মদিন উপলক্ষে সকাল থেকেই গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টের সামনে ভিড় জমিয়েছিলেন ভক্তরা। ভাইজান কে একঝলক দেখার জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করে ছিলেন। অভিনেতা ও নিজের ভক্তদের নিরাশ করেননি।

নিজের অ্যাপার্টমেন্ট এর ব্যালকনি থেকে ভক্তদের উদ্যেশে হাত নাড়েন অভিনেতা। আর সঙ্গে ছিলেন ভাইজানের বাবা সেলিম খান। এতদূর পর্যন্ত সব ঠিক ছিল। বিপদ ঘটলো এরপর। হঠাৎই ভাইজান কে দেখে নিজেদের সামলাতে পারেননি তার ভক্তরা। তারপরই ভিড় সামলানোর জন্য পুলিশ বাধ্য হয়ে লাঠি চার্জ করতে বাধ্য হয়। আর বর্তমানে সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে পড়েছে।

আর ভাইরাল সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে পুলিশ এর লাঠির ভয়ে সবাই চারিদিকে পালাচ্ছে। ভিডিও দেখে নেটিজেনদের ক্ষোভের মুখে পড়েছেন ভাইজান। নেটিজেনরা একেকরকম কমেন্টের বন্যায় ভরিয়েছেন। কেউ লিখেছেন ‛লাঠিচার্জ করা একেবারেই ঠিক হয়নি’।

আবার কেউ লিখেছেন ‛সালমানের ভক্তরা সব পাগল। প্রতিবারই এমন হয়’। এদিন ভক্তদের সঙ্গে সাক্ষাৎকারের ছবিও অভিনেতা শেয়ার করেছেন সোশ্যাল মাধ্যমে। সঙ্গে লিখেছেন ‛ধন্যবান সবাইকে’। এইদিন সালমান খানের জন্মদিন উপলক্ষে তার বোন অর্পিতা ও তার স্বামী আয়ুশ বড় করে পার্টির আয়োজন করেছিলেন। সেই পার্টিতে শাহরুখ খান থেকে শুরু করে সোনাক্ষী সিনহা, জেনেলিয়া, প্রীতি জিন্টা, পূজা হেগড়ে সকলেই উপস্থিত ছিলেন। সম্প্রতি পূজা হেগড়ের সঙ্গে সালমানের সম্পর্ক নিয়ে বেশ কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে। তবে কি এই সম্পর্ক বিয়ের পিঁড়িতে এগোবে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani)

Back to top button