বলিউডStory

রেডিও থেকে সোজা বলিউডের মেলোডি কিং! একের পর এক হিট গানের মাধ্যমে সোনু বর্তমানে ৩৭০ কোটি টাকার মালিক

গানের মেলোডি কিং বলতে প্রথমেই যার ছবি চোখের সামনে ভেসে ওঠে তিনি আর কেউ নন আমাদের সকলের প্রিয় সোনু নিগম। একের পর এক মন মাতানো গানের মাধ্যমে সকলের মন খুব সহজেই জিতে নিয়েছিলেন তিনি।

সুরেলা কন্ঠের গান কখনো মানুষের আবেগ হয় তার দুচোখের জলের মাধ্যমে ঝরে পড়েছে আবার কখনো মন গলিয়েছে তাদের। অভিনয় জগতেও বেশ কয়েকবার তার ঝলক দেখা গিয়েছে।

তবে বর্তমানে কমেছে তার জৌলুস, তার সেই চাহিদা, তার গানের সেই রমরমা কিন্তু এখনো বহু মানুষের কাছে তার কণ্ঠের গান সমানভাবে জনপ্রিয়। তবে এই নতুন প্রজন্মের ভিড়ে আস্তে আস্তে কোথায় যেন হারিয়ে যাচ্ছেন সোনু। ৯০ দশকের সেরা গায়ক দের মধ্যে ছিলেন অন্যতম একজন ছিলেন সোনু নিগম। তার গানের সুরে বহু মানুষের হৃদয় গলে সে বহুবার। একসময় হাজারো হাজার গান আমাদের উপহার দিয়েছেন সোনু।

এমনকি বহু মহিলার স্বপ্নের পুরুষের ছিলেন সোনু নিগম। বর্তমানে সোনু ৫০ ছুঁই ছুঁই। ১৯৭৩ সালে জন্ম হয় সোনু নিগমের। তারপর হঠাৎই একদিন গানের জগতে প্রবেশ করেন, গানের প্রতি ভালোবাসা থেকেই একদিন কিভাবে যেন সকলের মনে জায়গা করে নিলেন তিনি। একের পর এক হিট গান রিলিজ হতে থাকলো, বাড়তে থাকল জনপ্রিয়তা, এবং গান পিছু পারিশ্রমিক।

২০২১ এর মধ্যে সোনু প্রায় কয়েক কোটি টাকার মালিক হয়েছেন। ব্যাক টু ব্যাক সুপার হিট গান এনে দিয়েছে মোটা অংকের টাকা। বর্তমানে সোনু ৩৭০ কোটি টাকার মালিক। বিদেশি হিসেবে ৫০ মিলিয়ন, যা কোনো ভারতীয় অভিনেতার চেয়ে কম কিছু নয়। মাসে তার আয় ২ কোটি সুতরাং বছরে ২৪ কোটি। বর্তমানে মুম্বাইয়ের বাসিন্দা তিনি। মুম্বাইতে নিজের একটি বাংলো রয়েছে। ফরিদাবাদ থেকে সপরিবার নিয়ে চলে এসেছেন মুম্বাইতে।

তার গ্যারেজে রয়েছে রেঞ্জ রোভার, বিমডব্লিউ, অডি এফোর। বলিউডে তার একশটিরও উপড়ে গান হিট। দশটিরও বেশি ভাষায় গান গেয়েছেন তিনি। বাংলা, হিন্দি, ইংরেজি, গুজরাটি, কানাডা, তামিল, তেলেগু, মারাঠি, নেপালি, পাঞ্জাবি, তুলু ইত্যাদি ভাষাতেও গান গেয়েছেন সোনু নিগম।

খুব অল্প বয়সেই সোনু নিজের জায়গা বলিউডের পাকাপোক্তভাবে তৈরি করে নেয়। তার প্রথম গান রেডিওর মাধ্যমে সকলের সামনে আসে, যা তখন দারুণভাবে হিট করেছিল। আর তারপর থেকেই কঠোর পরিশ্রম, নিষ্ঠার গানের প্রতি ভালোবাসা, হাজার হাজার মানুষের ভালোবাসার জন্যই আজ সোনু এত বড় জায়গায় এসে পৌঁছেছে।

Back to top button