বলিউড

রামের নামে ছেলের নাম রেখেছেন কেন? ছেলের নাম রাখা নিয়ে নেটিজেনদের কটাক্ষের শিকার হলেন বলিউডের কিং খান

আগামী বছরই মুক্তি পেতে চলেছে শাহরুখ খানের নতুন ছবি ‘পাঠান’। ছবির নাম ঘিরে ইতিমধ্যে সমালোচনা, কটাক্ষ শুরু হয়েছে দর্শক মহলে। অনেকেই এই ছবির নাম নিয়ে কিং খানের নামে বিভিন্ন রকম মন্তব্য করছেন। পাঠানের ট্রিজার ভিডিও দেখার পর থেকেই এই ছবি বয়কটের দাবি তুলেছেন একাংশ নেটিজেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই নিয়ে জোরদার সমালোচনা হচ্ছে। তবে কিং খানকে কি আর আটকে রাখা যায়? অন্যদিকে শাহরুখ খানের ভক্তরা খুশি তাদের প্রিয় অভিনেতাকে চার বছর পর বড় পর্দায় ফিরে আসতে দেখে।

কাজের বাইরে পুরোপুরি পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানো শাহরুখ খান। স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে সবসময় ব্যস্ত থাকেন তিনি। তার স্ত্রী হিন্দু ধর্মের এবং তিনি মুসলিম ধর্মের। তবে ছেলে মেয়েদের এই ধর্মের ভেদাভেদে রাখতে চান না তারা কেউই।

ছেলেমেয়েদের সব ধর্ম নির্বিশেষে সব কিছুর সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার সাথে বড় করছেন দুজন। শাহরুখ-গৌরী তাদের সর্বকনিষ্ঠ সন্তান আব্রাম খানের নামের R অক্ষরটি বড় হাতের রেখেছেন। সম্প্রতি তার এক ভক্ত সোশ্যাল মিডিয়াতে আব্রাম নামের এমন বানান এবং নামের ব্যাখ্যা জানতে চেয়েছিলেন।

সোশ্যাল মিডিয়াতে অনুরাগী প্রশ্নের উত্তরে কিং খান লিখেছেন, “আব্রাম নামটি হযরত ইব্রাহিমের নামেরই একপ্রকার রূপান্তর। আমি ধর্মনিরপেক্ষ নাম পছন্দ করি।”

কিং খান আরো জানান“আমরা হিন্দু-মুসলিম পরিবার। তাই আমি সব সময় চাই আমাদের সন্তানরা ধর্মনিরপেক্ষ পরিবেশে বড় হয়ে উঠুক। R অক্ষর হিন্দু ধর্মের ভগবান রামের সঙ্গে সংযুক্ত। যে কারণে আব্রাম খানের নামের মধ্যে R অক্ষর থেকে বড় হাতে লেখা হয়েছে। নামটিকে একটু অন্যভাবেই লেখা হয়।”

আর এই নিয়ে দর্শকদের সমালোচনার মুখোমুখি পড়তে হয়েছে শাহরুখ খানকে। এর আগে সাইফ আলী খানকেও এই ধর্মের কারণে নানা রকম প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে। আমরা প্রত্যেকেই জানি সাইফ আলী খানের মা শর্মিলা ঠাকুর একজন বাঙালি হিন্দু ধর্মের নারী। কিন্তু তিনি বিয়ে করেছেন মুসলিম ধর্মে। সাইফের বাড়িতে যেমন হিন্দু ধর্মের গণেশ পূজা হয় তেমন ঈদেরও আয়োজন করা হয়, যা নিয়ে একাধিক কটাক্ষের সম্মুখীন হতে হয়েছে তাদের পরিবারকে।

Back to top button