বলিউড

“চার বছর আগের কথাও মনে রেখেছেন বিগ বি।” দ্বিতীয় বার বিগ- বি এর সাথে কাজের অভিজ্ঞতা ভাগ করে নিলেন অভিনেতা অম্বরিশ।

স্মৃতিচারণায় অভিনেতা অম্বরিশ ভট্টাচার্য। ছেলেবেলা থেকেই তার পছন্দের অভিনেতা ছিলেন নাসির উদ্দিন শাহ। তবে বাল্য কাল পেরিয়ে যখনই তিনি কৈশোরে পদার্পণ করলেন তখন থেকেই তার প্রিয় নায়ক হয়ে উঠলেন বিগ-বি অমিতাভ বচ্চন।
তিনি জানিয়েছেন , ” কৈশোরে বিগ বি এর অভিনয় দেখেই বড় হয়েছি। তারপর বড় হওয়ার পর যখন অভিনয়কেই আমি পেশা হিসেবে বেছে নিলাম তারপরেও কখনো স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারিনি যে একদিন আমার সাথে বিগ বি অমিতাভ বচ্চনের সামনাসামনি কখনো দেখা হবে বা আমার মত একজন অতি সামান্য অভিনেতার সাথে এই অসামান্য ব্যক্তি স্ক্রিন শেয়ার করবেন।”

কিন্তু হঠাৎ একদিন ঘটে গেল ম্যাজিক। একটি ফোন কল এলো হঠাৎ এবং অভিনেতা অম্বরিশ কে জানানো হলো প্রদীপ সরকারের একটি বিজ্ঞাপনের কাজে তাকে যেতে হবে মুম্বাই। অভিনেতা জানিয়েছেন, ” আমি ডেট চেঞ্জ করতে বলায় ফোনের ওপার থেকে আমাকে বলা হয় যে আমার সাথে যিনি স্ক্রিন শেয়ার করবেন তার পক্ষে ডেট চেঞ্জ করা পসিবল নয়। স্বভাবতই আমি তাকে জিজ্ঞেস করি যে কে তিনি? উত্তর আসে অমিতাভ বচ্চন। সেই দিনের কথা আমি এখনো ভুলিনি। সেটা ছিল ২০১৮ সাল”

তারপর অভিনেতা অম্বরিশ ভট্টাচার্য উড়ে গেলেন মুম্বাই এবং বিজ্ঞাপনের শুটিং শেষ করলেন। শুটিং শেষে বিগ বির পাশে বসতে একটু দ্বিধাবোধ করলেও অবশেষে সব দ্বিধা কাটিয়ে বিগ – বি এর সঙ্গে কথা বলা শুরু করেন অম্বরিশ। তারপর রীতিমতো শুরু হয়ে যায় আড্ডা। তারপর কেটে গেছে গোটা চার বছর। আবার ২০২২ এ তিনি সুযোগ পেলেন বিগ বিয়ের সাথে পর্দা ভাগ করে নেওয়ার।

আবারো শুটিংয়ের কাজে অম্বরিশ গেলেন মুম্বাই। তিনি ভেবেছিলেন যে বিগ বি হয়তো সেই চার বছর আগেকার কথা মনে রাখতে পারবেন না। নিশ্চয়ই চিনতে পারবেন না তাকে। কিন্তু অম্বরিশের এই ধারণাকে সম্পূর্ণ ভুল প্রমাণ করে বিগ বি জানান তিনি অম্বরিশ কে ঠিকই চিনতে পেরেছেন। আর তাতেই রীতিমতো আপ্লুত অভিনেতা অম্বরিশ ভট্টাচার্য।

তারপর বিগ বিয়ের মেকাপ ভ্যান দেখার বায়না করেন অম্বরিশ। ভেবেছিলেন এই বায়না হয়ত পূরণ হবে না। কিন্তু খুব হাসিমুখে এই দিক দিয়ে রাজি হয়ে গিয়েছিলেন। সেখানে গিয়ে আবার তাদের মধ্যে জমে উঠেছিল আড্ডা। শিশুসুলভ ভঙ্গিমায় নিজের আইফোন বার করে ওমরিস কে দেখাচ্ছিলেন তিনি কি কি অ্যাপ তাতে ডাউনলোড করেছেন। তার এই ছোটখাটো কার্যকলাপ থেকে অম্বরিশ মনে করেন, ” হয়তো তারকারা এরকমই হন। অনেক উঁচুতে থেকেও আসলে তারা মাটির খুব কাছাকাছি থাকেন।”

Back to top button