“মেকআপ করলেই কাক থেকে ময়ূর হওয়া যায়না,” আবার গায়ের রং নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে হেনস্থা হলেন দেশের মাটি খ্যাত অভিনেত্রী শ্রুতি দাস

গায়ের রং কালো হবার জন্য এবার সোশ্যালমিডিয়াতে হেনস্থা হলেন দেশের মাটির নোয়া উরফে শ্রুতি। শ্রুতি অন্যান্য অভিনেত্রীদের মতো ফর্সা নন, বরাবরই শ্যামলাভাবের জন্য তাকে বহু জায়গায় হেনস্থার স্বীকার হতে হয়েছে।

কিন্ত তাতে একফোঁটাও দোমে যাননি অভিনেত্রী বরং ঘুরে দাঁড়িয়েছেন বারবার। নিজের অভিনয়ের দ্বারা প্রমান করেছেন নিজেকে। অভিনয়ের গুনে তাই আজ শ্রুতি উর্ফ নোয়া বহু মানুষের মনে এক আলাদাই জায়গা করে তুলেছেন।

যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও গায়ের রঙের কারণে বারবার অভিনেত্রীকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়েছে। কিছুদিন আগে শ্রুতি তার ইনস্টাগ্রাম একাউন্টে একটি ছবি আপলোড করেন।

মূহ্র্তের মধ্যে শ্রুতির ভক্তরা তার ছবিতে প্রশংসায় ভরিয়েদেন। কিন্তু এক মহিলা সেখানে কমেন্ট করেন যে, “মেকাপ করলেই কাক থেকে ময়ূর হয় যায় না, তোমার থেকে অনেক সুন্দরী আমি” সাথেই আরো লেখেন যে, ” তোমার থেকে আমার টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিতে যোগাযোগ অনেক বেশি, বড়ো বড়ো তারকারা আমার বাড়িতে পার্টি করতে আসে.”

প্রিয় অভিনেত্রীর ছবির নিচে এই রূপ মন্তব্য দেখে বেজায় চটেছেন শ্রুতির ভক্তরা। তার সেই মহিলার কমেন্টে তাকে নানাভাবে অপমান করে শ্রুতির অনুগামীরা।

কমেন্ট দেখে অভিনেত্রী মন্তব্য করেন, “আপনার যদি যোগ্যতা থাকে তাহলে নিশ্চই একদিন আপনি আমাকে ছাড়িয়ে যাবেন, কিন্তু আকর্তা কথা মনে রাখবেন মানুষের রূপ কখনো চিরস্থায়ী নয়। ”

শ্রুতি আরো লেখেন তিনি আজ যা কিছু সবই তিনি নিজে থেকে অর্জন করেছেন। তাকে কেউ হাতে ধরে দিয়ে যাননি। গায়ের রং নিয়ে সমালোচনা নতুন কোনো কথা নয়।

সমগ্র বিশ্বে গায়ের রং নিয়ে নানারকম কথার স্বীকার হতে হয় মেয়েদের। যতই তারা তাদের কাজে যোগ্য হোক না কেন গায়ের রঙের ভিত্তিতেই তাদের যোগ্যতা নির্ধারণ হয়ে আসছে। আজও এই মহিলার মন্তব্যে এটি প্রমাণিত হল যে তুমি তোমার গায়ের রং দ্বারাই বিচার্য হবে।