কলকাতার রাস্তায় ঘুরছেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর! সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল সেই ফটো দেখে হতচকিত নেটদুনিয়া

সোশ্যাল মিডিয়া তথা ভার্চুয়াল দুনিয়াকে অনেকেই বিশ্বাস করেন না, কারণ অনেক ক্ষেত্রেই অবিশ্বাস্য নানা ঘটনা সেখানে দেখা যায়। এবার তেমনই এক অবিশ্বাস্য ঘটনা প্রত্যক্ষ করে হতচকিত নেটিজেনরা।

ঘটনাটি হল কিছুদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়া একটি ফটো ভাইরাল হয় যেখানে দেখা যায় অবিকল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মতো দেখতে এক ভদ্রলোক হেঁটে বেড়াচ্ছেন কলকাতার রাস্তায়। তৎক্ষণাৎ নেট দুনিয়ায় নেটিজেনরা মন্তব্য করতে থাকেন রবীন্দ্রনাথের ‘পুনর্জন্ম’ হয়েছে বলে।

তবে ছবিতে থাকা অবিকল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মতো দেখতে ভদ্রলোক হলেন আসলে সোমনাথ ভদ্র, পেশায় বিএসএনএল এর কর্মী। হেদুয়ার বাসিন্দা সোমনাথ বাবু বড় হয়েছেন রবীন্দ্রনাথের সৃষ্টির সাহচর্য্যে। রবীন্দ্রনাথের গান ও কবিতায় কেটেছে তার কৈশোর।

তবে বড় হয়ে ওঠার সময় আস্তে আস্তে তিনি বুঝতে পারেন ছবিতে দেখা রবি ঠাকুরের মতই তাকে দেখতে অনেকটা। এর কিছুদিন পর তিনি তার চুল এবং দাড়ি কেটে ফেলতে চাইলে রামকৃষ্ণ মঠের এক মহারাজ তাকে অনুরোধ করেন তার চুল এবং দাড়ি না কাটতে।

কারণ হিসেবে তিনি জানিয়েছিলেন চুল দাড়ি বাড়লে তাকে অবিকল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মতোই দেখতে লাগবে।
মঠের মহারাজের অনুরোধ ফেলতে না পেরে চুল দাড়ি বাড়াতে থাকেন সোমনাথ বাবু। তারই ফলস্বরূপ আজ নেটদুনিয়ায় তিনি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ফটোকপি হিসেবে পরিচিত।

সোশ্যাল মিডিয়ায় তার ছবি ভাইরাল হওয়ার পর অনেকেই তাঁকে পার্সোনালি যোগাযোগ করেন ফটোশুটের জন্য। সোমনাথ বাবু সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন কাজের ফাঁকে তিনি সবসময় চেষ্টা করেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর সম্পর্কিত কোন অনুষ্ঠান হলে সেখানে উপস্থিত থাকার।

সেই কারণেই বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে তিনি নিয়মিত ভাবে জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ি ও রবীন্দ্রভারতীর বিখ্যাত বসন্ত উৎসবে হাজির হন। সেখানে তিনি বেশ জনপ্রিয়।তাকে দেখে সেলফি নিতে যাওয়া উৎসাহী জনতার সংখ্যা সেখানে নেহাত কম নয়।