ভাইরাল

‘বাচপান কা প্যায়ার’, খুদে গায়কের প্রশংসায় পঞ্চমুখ বাদশাসহ ছত্রিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী, বিশেষ সম্মান তার উদ্দেশ্যে, ভাইরাল ভিডিও

সবার হোয়াটসঅ্যাপ স্ট্যাটাস বা এফবি পোস্ট কিংবা ইনস্টাগ্রম পোস্ট খুললেই যে গানটি ভেসে উঠছে, সেটি হল ‘বাচপান কা পেয়ার ভুল নেহি জানা রে।’ বাচ্চা ছেলের এই গাওয়া গানটি নেটিজেনদের বেজায় পছন্দ হয়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। টিভি তারকা থেকে শুরু করে বলিউডের সবাই এই গানটির সাথে নেচে নিজেদের ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট ভরিয়ে দিচ্ছেন।

গানটি প্রকাশ্যে আসার পরই ইতিমধ্যেই তৈরি হয়ে গেছে ১২ হাজারেরও বেশি রিল ভিডিও। মূল ভিডিওটিতে ভিউজ পড়েছে প্রায় এক মিলিয়ন এর কাছাকাছি। লাইক পড়েছে প্রায় সাড়ে চার লক্ষ। রিল ভিডিওর তালিকায় সাধারণ মানুষ থেকে বাদ যাননি বলিউডের বিখ্যাত রেপর বাদশাহও।

যে গানটিতে সকলে রিল ভিডিও বানাচ্ছে সেই ভিডিওর গানের ওনার হল সহদেব ডিরডো। হু হু করে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে এই গান। তার গান দেখে তাকে গান গাওয়ার সুযোগ দিতে চেয়েছেন স্বয়ং বাদশা। তবে বলিউডে তার পাড়ি দেয়া হবে কিনা ইতিমধ্যে সেভাবে কিছুই বলা যাচ্ছে না।

বাদশাহের সাথে সাথে সম্মান জানিয়েছেন ছত্রিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রীও। মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল সহদেব কে ডাকেন একটি অনুষ্ঠানে। তার ভাইরাল হওয়া গানটি তিনি সেখানে গাইতে বলেন ছোট খুদে কে। সেটি স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী নিজের টুইটার থেকে শেয়ার করেছেন। তার সরলতায় মুগ্ধ গোটা দেশ।

এই বাচ্চা ছেলেটি ছত্রিশগড়ের সুকুমারের বাসিন্দা প্রায় এক দশকেরও বেশি ধরে। তার বাবা পেশায় একজন কৃষক। যে গানটি আজ খবরের শিরোনামে ভাসছে সেই গানটি আসলে আঞ্চলিক ছবিতে ব্যবহৃত একটি গান। প্রায় বছর দুই আগে তার স্কুলের শিক্ষক সন্তোষের সামনেই এই গানটি গায় খুদে পড়ুয়া।

তারপর শিক্ষক মহাশয় সামাজিক মাধ্যমে গানটি আপলোড করেন। তবে এই খুদের মা নেই। মাত্র ছয় বছর বয়সে খুদে তার মাকে হারায়। বাড়িতে বাবা ছাড়াও রয়েছে চার ভাই এবং দুই বোন। তবুও এই অভাবের সংসারেই সে স্বপ্ন দেখে গায়ক হওয়ার।

Back to top button