Uncategorized

আবারো বাঙালির মুখ উজ্জ্বল করে নিউইয়র্ক ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে ‘সেরা অভিনেত্রীর’ খেতাব জিতে নিলেন শ্রীলেখা মিত্র, আন্তর্জাতিক মঞ্চে পেলেন বিরাট সম্মান

আরো একবার বাংলা তথা সকল বাঙ্গালীদের মুখ উজ্জ্বল করলেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। নিউইয়র্ক ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সেরা অভিনেত্রীর খেতাব জয় করে নিলেন শ্রীলেখা। ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন ক্যালকাটা’ ছবির জন্য সেরা অভিনেত্রীর খেতাব পেলেন তিনি। এই সুসংবাদ নিজেই ভক্তদের সঙ্গে ভাগ করে নিলেন শ্রীলেখা। সোশ্যাল মিডিয়া একটি ছবি এবং ভিডিও শেয়ার করে নিয়েছেন অভিনেত্রী, যেখানে তার নাম ঘোষণা করা হচ্ছে সেরা অভিনেত্রী হিসেবে এবং এই ভিডিওটি শেয়ার করে অভিনেত্রী ক্যাপশনে লিখেছেন ‘আমি জিতেছি। ধন‍্যবাদ বিশ্ব, ধন‍্যবাদ নিউ ইয়র্ক ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ‍্যাল। ধন‍্যবাদ আদিত‍্য বিক্রম সেনগুপ্ত। ধন‍্যবাদ অরিন্দম ঘোষ। ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন ক‍্যালকাটা ছবির গোটা টিমকে ধন‍্যবাদ। শুভাকাঙ্খী এবং নিন্দুক সকলকেই ধন‍্যবাদ, তোমাদের কাছে আমি ঋণী। আমার বাবা মা খুব গর্বিত আমি নিশ্চিত।’

শ্রীলেখা কন্যা ও বেশ খুশি মায়ের এই জয়ের জন্য হোয়াটসঅ্যাপ স্ট্যাটাসে দিয়ে সকলকে সুসংবাদ দিয়েছে এবং মায়ের জন্য গর্ববোধ করেছে সে। ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন ক্যালকাটা এর আগেও শ্রীলেখা মিত্র কে সম্মান এনে দিয়েছে ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে এই ছবি প্রদর্শিত হয়েছিল। তবে নিউইয়র্ক ফেস্টিভ্যালে শুধুমাত্র শ্রীলেখা মিত্র এর সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছেন তা নয় এই ছবির পরিচালক বিক্রম সেনগুপ্ত পেয়েছেন সেরা পরিচালকের পুরস্কার।

তবে শ্রীলেখার মনে একটাই ক্ষোভ এবং খারাপ লাগাও বলতে পারেন যে নিজের দেশের চলচ্চিত্র উৎসবের ডাক পান না তিনি। কদিন আগে ফেসবুকে সেই নিয়ে পোস্ট করেছেন তিনি। তিনি লিখেছেন, ‘কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০২২ থেকে কোনো আমন্ত্রণ আসেনি। এমনকি একটা ফোন পর্যন্ত না। এটা কি আমার রাজনৈতিক মতাদর্শের কারণে না অন‍্য কোনো অজ্ঞাত কারণ আছে? তৃণমূল সরকার কী প্রতিহিংসাপরায়ণ মাইরি!’ তবে সেই সমস্ত দুঃখ ভুলে গিয়ে বর্তমানে আনন্দে মেতে উঠেছেন অভিনেত্রী।

Back to top button