Story

ঘর পাহারায় জন্য নিযুক্ত রোবট কুকুর, ৫০০ ফুটের ঘড়ি! অ্যামাজন মালিকের মালিকানায় রয়েছে একাধিক নামি দামি জিনিস, অ্যামাজন মালিকের সংগ্রহে কিছু মূল্যবান জিনিস, জেনে নিন সেগুলোর সম্পর্কে

আমরা যেই অ্যামাজন অনলাইন অ্যাপটি থেকে কেনাকাটা করে থাকি তার যিনি মালিক তিনি হলেন জেফ বেজোস। নিজের সখ পূরণ করতে বিভিন্ন দামি দামি ব্র্যান্ডের জিনিস কিনে থাকেন তিনি। কিন্তু এছাড়াও তার একটি অদ্ভুত সখ রয়েছে। সেটি হলো তিনি পুরনো ভাঙা জিনিস সংগ্রহ করতে ভালোবাসেন। নিজের কোটি কোটি টাকা খরচ করে ভাঙ্গা জিনিস কেনেন। বর্তমান সময়ে ২০২২ সাল অনুযায়ী তার মোট সম্পত্তির পরিমাণ US$১৬,৩৬০ মিলিয়ন।

জেফ হলেন বিশ্বের দ্বিতীয় ধনী ব্যক্তি। তিনিও বিলাসবহুল জীবনযাপন করেন। তার কাছেও প্রচুর বিলাস বহুল জিনিস রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম হলো।

১. প্রাইভেট জেট প্লেন: জেফ সবসময় নিজের প্রাইভেট জেটে ভ্রমণ করেন। তিনি আমেরিকা থেকে ইউরোপ ভ্রমণের সময় জেট ব্যবহার করে থাকেন। জেফের কাছে গোটা বিশ্বের অন্যতম দ্রুততম জেট রয়েছে। যার নাম G-৬৫০ER। এর দাম প্রায় সারে ছয় কোটি টাকা আমেরিকান ডলার অনুযায়ী। ভারতীয় মুদ্রায় হিসেব করলে যা প্রায় ৪৭৬ কোটি টাকা দাড়ায়।

২. মিউজিয়াম হোম: যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে জেফ নিজের জন্য একটি বিলাসবহুল বাড়ি কিনেছিলেন। শোনা যায় এই বাড়িটি একসময় জামা-কাপড়ের জাদুঘর ছিল। সেই বাড়িটি জেফ কিনে আবার সাজিয়েছে। এই বাড়িটির ভিতরে মোট ১১টি বেডরুম, ২৫টি বাথরুম, ৫ টি বসার ঘর এবং দুটি লিফট রয়েছে। বাড়িটির দাম প্রায় আড়াই কোটি মার্কিন ডলার। ভারতীয় মুদ্রার হিসেবে যার মূল্য প্রায় ১৭৩ কোটি টাকা।

৩. প্রাসাদ: জেফ এর এই প্রাসাদটি নিউইয়র্ক সিটির ২১২ ফিফথ অ্যাভিনিউতে, বহু মূল্যের এটি বেজোসের বহুতল বাসভবন। ওই বহুতল ভবনে তার মোট ১১.২ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের সম্পত্তি রয়েছে। যার ভারতীয় মূল্য ৮৪০ কোটি টাকার সমান। বিলাসবহুল এই প্রাসাদে পেন্টহাউস থেকে শুরু করে ফিটনেস রুম, গলফ কোর্স, আলাদা গেম রুম, ছোট সিনেমা হল- সবই আছে।

৪. হলিউড হোম: হলিউডের বড় বড় তারকারা লস অ্যাঞ্জেলেসের বেভারলি হিলসে থাকেন জেফ হলেন তাদের প্রতিবেশী। সাড়ে নয় একর জমির উপর সবুজে ঘেরা এলাকার মাঝখানে বেজোসের বাড়ি। মোট ১৬.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে কিনেছেন গোটা সম্পত্তি। যার ভারতীয় মূল্য ১২৩৭ কোটি টাকার কিছু বেশি।

৫. সুপার ইয়ট: জেফ বিশ্বের সবথেকে বড় প্লেজার বোট বা সুপার ইয়টের মালিক। যার নাম Y7২১, এর দৈর্ঘ্য ৪১৭ফুট। ২০১৮ সালে জেফ এটি তৈরির কাজ শুরু করার কথা বলেছিলেন। এখন তার কাজ শেষ পর্যায়ে। দাম প্রায় ৫০ কোটি টাকা মার্কিন ডলার অনুযায়ী। ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা।

৬. রোবট কুকুর: জেফের একটি পোষা প্রাণী আছে। তবে সাধারণ চার পায়ের রক্ত মাংসের নয়। জেফ একটি রোবট কুকুর পালন করেন। জেফের যান্ত্রিক এই কুকুরটির নাম স্পট। যার দাম আমেরিকান মুদ্রা অনুসারে ৭৪ হাজার ডলার। কুকুরটির ওজন ১৪ কেজি। তাই এই কুকুরকে যেকোনো জায়গায় বহন করে নিয়ে যাওয়া যায়। এটি প্রায় সমস্ত ধরনের কাজ করতে পারে। এমনকি মালিকের জন্য পানীয়ও আনতে পারে।

৭. লেক হাউস: জেফ ওয়াশিংটনের লেক মেডিনায় দুই হেক্টরের একটি বাড়ির মালিক। বাড়ির পাশে একটি হাউসবোটও রয়েছে। এর মোট, দাম প্রায় ১২ কোটি ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় যার মূল্য ৮৮৪ কোটি টাকা।

৮. ‘জায়েন্ট’ ঘড়ি: জেফ নিজেই একটি বড় ঘড়ি তৈরি করছেন। যার উচ্চতা প্রায় ৫০০ ফুট উপরে স্থাপিত। এটির দৈর্ঘ্য দেড় হাজার স্ট্যাচু অফ লিবার্টির থেকে কিছুটা বেশি। পশ্চিম টেক্সাসে পর্বত ঘড়িটি তৈরি করতে প্রায় সারে ৪ কোটি ডলার খরচ করছেন। বেজোসের মতে, ঘড়িটি এমনভাবে তৈরি করা হচ্ছে যে এটি ১০,০০০ বছর ধরে চলবে।

Back to top button