Story

চিরচেনা কন্ঠশিল্পী, যাদের কন্ঠের জাদুতে মুগ্ধ আট থেকে আশি

ব্র্যান্ডেড বিজ্ঞাপন থেকে শুরু করে মেট্রো রেল, নেপথ্য কণ্ঠের কারিগররা জড়িয়ে থাকেন রোজকার জীবনেই। কখনো অফিসের পথে যেতে মেট্রোর চেনা কণ্ঠে বার্তা হোক বা সকালের খবর এর চ্যানেল এর সার্ফ এক্সেলের বিজ্ঞাপনে চেনা সুরে “দাগ আছে হ্যায়” , কিংবা এশিয়ান পেইন্টস এর ” হর ঘর কুছ কেহেতা হ্যায়” এর সাথে মিশে আছে আমাদের আবেগ । কিন্তু এই পরিচিত কণ্ঠ কাদের? চলুন আজকে সেটাই জেনে নিই।

রিচা নিগম:
সার্ফ এক্সেলের ” দাগ আছে হ্যায়” এর মাধ্যমে রিচা নিগমের কণ্ঠের সাথে পরিচিত আমরা সবাই । তবে শুধু সার্ফ এক্সেল ই নয় , টাটা স্কাই , ব্রুকব্যান্ড , কোকাকোলা , নিউট্রি লাইট, পিলসবুরি প্রভৃতি ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপনের নেপথ্য কণ্ঠ শিল্পী ও ইনিই। ছোটবেলায় তার অদ্ভুত কণ্ঠস্বরের জন্য লোকের কাছে হাসির পাত্র হতেন তিনি । রীতিমত হতাশায় ভুগতে শুরু করেন এই শিল্পী। তবে সময় তার সাথ দেয় , এখন তার এই “অদ্ভুত” কণ্ঠস্বরের কারণেই তিনি বিখ্যাত হয়ে আছেন ।

শাম্মী নারাং:
প্রায় দুই দশক ধরে “দূরদর্শন” এর সাংবাদিক ছিলেন ইনি। তবে তার কন্ঠ আমরা চিনি অন্যভাবে । মুম্বাই , দিল্লি সহ ব্যাঙ্গালোর , গুরগাঁও, জয়পুর , হায়দ্রাবাদ নগরীতে মেট্রো স্টেশনের সব বার্তায় শোনা যায় ব্যারিটোন ভয়েসের অধিকারী শাম্মী নারং এর কন্ঠ । মেটার লজিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার পর ভেবেছিলেন সরকারি চাকরিজীবী হবেন , কিন্তু তার ভাগ্য তাকে ডেকে নিয়ে যায় সাংবাদিকতায় ও তার পরে কণ্ঠশিল্পী রূপে আতমপ্রকাশ ঘটে তার

পীযুষ পান্ডে:
” হর ঘর কুছ ক্যাহতা হ্যায়” ই শুধু নয় , ইয়ে আওয়াজ ভি কুছ ক্যহতা হ্যায় , হ্যাঁ এই আওয়াজ বা স্বর আমাদের বহুল পরিচিত । এশিয়ান পেইন্টস এর এই বিজ্ঞাপনের মাধ্যমেই পীযুষ পান্ডে বিখ্যাত। এই ব্র্যান্ড ছাড়াও ফেভিকল , ক্যাডবেরি , ভোডাফোন ও অন্যান্য নামিদামি ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপনেও শোনা যায় তার স্বর। এমনকি ২০১৪ সালের বিজেপি ভোট প্রচারেও তার কন্ঠ শোনা গেছিলো। তার কণ্ঠের জন্য তিনি ২০১৬ তে পদ্মশ্রী সম্মানে ভূষিত হন।

পীযুষ মিশ্র:
“রোকো মত , টোকো মাত” , পড়লে জি সংস্থার বিখ্যাত এই গান গেয়েছিলেন পীযুষ মিশ্র। যদিও তিনি একজন অভিনেতা । “দিল সে” ছবির মাধ্যমে বলিউডে পা রাখলেও তার আনাগোনা দক্ষিণী জগতেও অবাধ ।

রঘুবীর যাদব :
“পঞ্চায়েত” ওয়েব সিরিজের প্রধানের চরিত্র থেকে বিখ্যাত হলেও তার কন্ঠ পূর্বপরিচিত আমাদের কাছে । কোটাক মাহিন্দ্রা , ভীম , পারলে , ব্রিটানিয়া সহ বিভিন্ন ব্র্যান্ডের সঙ্গে মিশে আছে তার কন্ঠ । পেপসি এর একটি বিজ্ঞাপনে , সচিন তেন্ডুলকর এর নেপথ্যে একটি গান বেজে উঠেছিল , টা আমাদের সকলের ই মনে এখনও বাসা বেধে আছে , “উমর ঘুমোর মে” , তার ই গাওয়া।

অতুল কাপুর:
বিগ বসের বাড়িতে অতিথি এলেই যে কণ্ঠে শোনা যেত স্বাগতম বার্তা ” বিগ বস কে ঘরমে অপকি সোয়াগত হ্যায়” , সেই কণ্ঠের মালিক হলেন অতুল কাপুর । তিনি বহু ইংলিশ ছবির ডাবিং আর্টিস্ট হিসাবেও কাজ করেছেন । আয়রণম্যান ছবির ” জার্ভিস” এর হিন্দি ডাবিং তার ই করা।

লতাজি বলে গেছিলেন, “মেরি আওয়াজ হি পেহেচান হ্যা,গার ইয়াদ রহে”। বিজ্ঞাপন জগতে এই সব নক্ষত্রেরা চিরকাল থেকে যান প্রচারের থেকে শতহস্ত দূরে। তবুও তাদের কণ্ঠের জাদুতে বছরের পর বছর ধরে মুগ্ধ আট থেকে আশি।

Back to top button