Story

বিজ্ঞান নিয়ে পড়েও মন বসলো মিউজিকে! রইল ভাইরাল গান ‘মানিকে মাগে হিথে’ গায়িকার আসল পরিচয়

এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় সবচেয়ে ভাইরাল গান হল মানিকে মাগে হিথে। সিংহলি ভাষায় গাওয়া এই গান শুনে সুর পছন্দ করলেও বুঝতে পারছেন না এই গানের ভাষা। এই গানের তালে মুগ্ধ হন নি এমন নেটিজেনদের হয়তো খোঁজ পাওয়া যাবেই না। ইনস্টাগ্রাম রিল ভিডিও থেকে শুরু করে ফেসবুক স্টোরি নিত্য নতুন ডান্স কভার থেকে ফোনের কলার টিউন সব জায়গাতেই এখন জনপ্রিয় এই গান। এক কথায় বলা যেতে পারে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে এই গানের সুর তাল সবকিছুই। তবে ভিডিওতে যাকে কানে কালো হেডফোন পরে দেখা যাচ্ছে তার আসল পরিচয় কি আপনারা জানেন!

এই গানের স্রষ্টা হলেন সাগর পাড়ের গায়িকা ইয়োহানি ডি সিলভার। এই মিষ্টি মেয়ে গানেই মজেছে গোটা আট থেকে আশি। ২৮ বছর বয়সে হয়ে উঠেছেন ইউটিউব স্টার। তিনি হলেন এখন বিখ্যাত শ্রীলংকার রাপ প্রিন্সেস। এই গায়িকার জন্ম ১৯৯৩ সালের ৩০ শে জুলাই কলম্বো শহরে। তার বাবার নাম হল প্রসন্ন ডি সিলভা। মায়ের নাম দিনীতি দিসিলভা। বাবা ছিলেন পেশায় একজন আর্মি অফিসার এবং মা একজন বিমান সেবিকা। তার মতই রয়েছে মিষ্টি এক বোন শিবিন্দ্রী ডি সিলভা।

খ্রিস্টান ধর্মের এই মেয়ের ডাকনাম ইউহি। মিউজিক জগতে পা রাখার আগে তিনি লজিস্টিক ম্যানেজমেন্টকে ছিলেন। গায়িকার পাশাপাশি তিনি হলেন শ্রীলংকার জনপ্রিয় অভিনেত্রী, মডেল এবং রেপার। গায়িকার সাথে এই গানের সঙ্গ দিয়েছ আরেক জনপ্রিয় রাপার সথীশন রথনায়কা।

বিজ্ঞানের ছাত্রী তিনি কলম্বোর বিশাখা কলেজ থেকে প্রাথমিক পড়াশোনা শেষ করে সার জোন কোটালাওয়ালা ডিফেন্স ইউনিভার্সিটি থেকে পরবর্তী পড়াশোনা সম্পন্ন করেন। ইওহানি ২০২০ সালে নিজের প্রথম গান আয় রিলিজ করেন। এই গানটি এখনো পর্যন্ত এক মিলিয়নের বেশি মানুষ শুনেছেন। এই গানটির চরম সফলতার পর ২০২০ সালে “চামথ সঙ্গীতের” সঙ্গে মিলে ইয়োহানি নিজের দ্বিতীয় গান “সীতা দাওনা” শ্রোতাদের সামনে আনেন। এখনো অবধি তার গাওয়া সর্বশ্রেষ্ঠ গান হল এই ভাইরাল গানটি।

ইয়োহানি ডি সিলভার ভাইরাল এই গান ‘মানিকে মাগে হিথে’ এর বাংলা তরজমা করলে দাঁড়ায় তুমি আমার চোখের মনি। যদিও এই লাইনের রয়েছে আরও একটি সুন্দর অর্থ। যেটি হল তোমার সৌন্দর্য থেকে চোখ সরানো যায়। এই গানের পুরো অর্থ বুঝতে না পেরে বিরক্ত হচ্ছেন দর্শকেরা। নিজের মতো করে উচ্চারণ বসাতে দেখা যাচ্ছে নেট দুনিয়ায়। কেউ কেউ আবার এই গানের সাথে রিমিক্স করে নিজেদের গান বার করে ফেলেছেন।

Back to top button