Story

‘আমি ‘সিঙ্গেল মাদার’ বলে আমার মেয়েকে ভর্তি নিতে চায়নি কলকাতার নামি দামী স্কুল’! সামনে এল স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ের চোখে জল আনা সংগ্রামের কাহিনী

এই মুহূর্তে টলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় একজন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। তবে ঠোঁটকাটা হিসেবে পরিচয় রয়েছে তার। তার অনুগামীরা মনে করেন স্পষ্ট কথা স্পষ্টভাবে বলতে পিছপা হন না অভিনেত্রী। তবে এবার এক জনপ্রিয় টক শোতে এসে নিজের জীবনের সংগ্রামের কথা তুলে ধরতে দেখা গেল তাকে প্রসঙ্গত জি বাংলার ‘অপুর সংসার’ টকশোতে অতিথি হিসেবে হাজির হয়েছিলেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। সেখানেই বিয়ের প্রসঙ্গে অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন তিনি আর বিয়ে করতে চান না।

এরপর সঞ্চালক শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন একবার বিয়ে করেই নানান সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে তাকে। প্রসঙ্গত মাত্র ১৮ বছর বয়সে প্রয়াত রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী সাগর সেনের পুত্র প্রমিত সেনকে বিয়ে করেছিলেন স্বস্তিকা। কিন্তু অল্প দিনের মধ্যেই স্বামীর বিরুদ্ধে শারীরিক এবং মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ তুলে ডিভোর্স দায়ের করতে দেখা গিয়েছিল তাকে। যদিও আজ পর্যন্ত আইনত বিচ্ছেদ হয়নি তার। তবে মেয়েকে নিয়ে তারপর থেকে একাই থাকতেন অভিনেত্রী।

এদিন কথা প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন যেহেতু তিনি একাই মেয়েকে বড় করে তুলেছিলেন তাই কলকাতার অনেক নামিদামি স্কুলে মেয়েকে ভর্তি করাতে গিয়ে ফিরবো সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছিল তাকে। কারণ পিতৃপরিচয় ছাড়া তার মেয়েকে ভর্তি নিতে চায়নি অনেক স্কুল। অভিনেত্রী জানিয়েছেন তার বাবার সন্তু মুখোপাধ্যায় হাজির হলেও ভর্তি হতে পারেনি তার মেয়ে। যার কারণে মানসিকভাবে বেশ ভেঙ্গে পড়েছিলেন অভিনেত্রী। বলাই বাহুল্য তার সংগ্রামের কাহিনী এদিন চোখে জল এনে দিয়েছে নেটিজেনদের।

Back to top button