Story

ভারতের এই গ্রাম থেকে হেলিকপ্টারে করে মিষ্টি আসে আম্বানির পরিবারের জন্য! উত্তরপ্রদেশের একটি ছোট গ্রাম থেকে মিষ্টি আসে আম্বানি পরিবারে

আম্বানি পরিবার পৃথিবীর ধনী পরিবার গুলোর মধ্যে অন্যতম। মুকেশ আম্বানি ও অনিল আম্বানি দুজনেই ভারতের বড়, প্রতিষ্ঠিত, নামি সংস্থার মাথা। গোটা ভারতবাসী চেনেন তাদের। তাদের প্রতিপত্তি, তাদের জীবন যাপনের ধরন আকর্ষণ করে সাধারণকে। থেকে থেকেই আম্বানি পরিবারের অন্দরের নানা ধরনের তথ্য উঠে আসে প্রকাশ্যে। সম্প্রতি আম্বানি পরিবারের খাদ্যাভাস নিয়ে এক বিশেষ তথ্য প্রকাশ পেয়েছে।

শোনা যায়, আম্বানি পরিবারের সকল সদস্যরা খুব সাধারণ খাদ্যাভাসে অভ্যস্ত। রাজকীয় খানাপিনার পাশাপাশি ভাত, ডাল, রুটি এই সমস্ত সাধারণ খাবারও থাকে তাদের খাওয়ার তালিকায়। সম্প্রতি জানা গেছে, উত্তরপ্রদেশের একটি ছোট গ্রাম থেকে আম্বানি পরিবারের জন্য আসে এক বিশেষ ধরনের মিষ্টি। সেই মিষ্টি পাঠানো হয় হেলিকপ্টার করে। আম্বানি পরিবারের যেকোন অনুষ্ঠানে প্রায়ই অর্ডার দিয়ে আনানো হয় এই বিশেষ মিষ্টি।

উত্তরপ্রদেশের তিলহার গ্রামে রয়েছে এই মিষ্টির দোকানটি। যে বিশেষ ধরনের মিষ্টি আম্বানি পরিবারের জন্য পাঠানো হয় তার নাম, লোচা। একেবারে খাঁটি দুধ দিয়ে তৈরি করা হয় এই মিষ্টি। শোনা যায় অনিল আম্বানির স্ত্রী ও টিনা আম্বানি আগেই স্বাদ নিয়েছিলেন এই মিষ্টির। এই মিষ্টি খাওয়ার পর তাদের এতই ভাল লেগে যায় যে তারপর থেকে তারা উত্তরপ্রদেশের এই দোকান থেকে এই বিশেষ মিষ্টিটি প্রায়ই আনিয়ে থাকেন নিজেদের বাড়ির জন্য।

উত্তরপ্রদেশে শাহজাহানপুরে অনিল আম্বানির একটি তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র রয়েছে। সম্ভবত সেই তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের কোন কাজের জন্যই টিনা আম্বানি গিয়েছিলেন সেখানে। আর ঘটনাচক্রের স্বাদ নিয়েছিলেন এই মিষ্টির। লকডাউনের মধ্যেও নাকি অর্ডার দিয়ে আনানো হয়েছিল এই মিষ্টি। প্রায় বেশ কয়েক বছর ধরেই উত্তরপ্রদেশের তিলহার গ্রামের এই মিষ্টির দোকান থেকে অর্ডার দেওয়া হয় এই বিশেষ ধরনের মিষ্টির। সম্প্রতি সেই তথ্যটি প্রকাশ্যে উঠে এসেছে।

Back to top button