সামনেই ওয়াইনের গ্লাস, তাকালেন না সেদিকে, তার বদলে কি করলেন শুভশ্রী?

রবিবার রাজ চক্রবর্তী সকাল সকাল বেরিয়ে পড়েছেন বোলপুরের উদ্দেশ্যে৷ একেই রবিবার,বাঙালির ছুটির দিন৷ আর এ দিনেও বাড়িতে একা থাকবেন রাজের স্ত্রী? মোটেই না৷ বরং রবিবারের দুপুরে জমিয়ে খাওয়া—দাওয়া করলেন শুভশ্রী আর তার দিদি দেবশ্রী মিলে৷ রবিবার শুভশ্রীর দিদি দেবশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় নিজেই ইনস্টাগ্রাম হ্যাণ্ডেলে শেয়ার করেন তাদের লাঞ্চের ছবি৷ রবিবারের দুপুরে দিদি—বোনের লাঞ্চ ডেট হয়েছে একেবারে ফাটাফাটি৷ শুভশ্রী আর দেবশ্রী দুজনেই পড়েছিবেন কালো টপ৷ মা হওয়ার পরেও শুভশ্রীর গ্ল্যামার কমেনি কোনো অংশেই৷ বরং তিনি যে রীতিমতো নিজের প্রতি যত্ন নেন তা তার ছবি দেখে ভালোভাবেই বোঝা যায়৷

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে শুভশ্রী মা হন৷রাজ আর তার ছেলে ইউভান৷ তবে এদিন ছোট্ট ইউভানকে অবশ্য দেখা গেল না ছবিতে৷ রবিবার বোনকে সঙ্গ দিতেই দেবশ্রী আসেন তার বাড়িতে৷ দুজনে একসাথে খাওয়া—দাওয়া সারেন৷ এমনকি দেবশ্রী যে ছবি শেযার করেছেন তার ইনস্টাগ্রামে,সেখানে দেখা যাচ্ছে ওয়াইনের গ্লাস৷ গ্লাস হাতে দেখা গেছে দেবশ্রীর ছবিও৷ কিন্তু, তার বোন হয়ে উঠেছেন বেশ ব্যতিক্রমী৷ বাড়িতে ওয়াইন থাকলেও ছুঁয়ে দেখেননি শুভশ্রী৷ সামনে ওয়াইন থাকা সত্ত্বেও শুভশ্রী কেন খেলেন না ওয়াইন?

তার কারণ পাওয়া গেছে তারই শেয়ার করা একটি ভিডিওতে৷ সেখানে দেখা যাচ্ছে যে ওয়াইনের গ্লাস সামনে থাকার পরেও সেদিক না তাকিয়ে পিছন থেকে বের করছেন জলের বোতল৷ সাথে মুখে ফুটে উঠছে সম্মতিসূচক হাসি৷ অর্থাৎ ওয়াইনকে “না” , জলের বোতলকে “হ্যা”—শুভশ্রীর নজর পরিষ্কার৷ দু—তিন সপ্তাহ ধরেই কখনও শুভশ্রী রেস্তোরাতে যাচ্ছেন খেতে আর কখনও আবার বাড়িতেই বন্ধুদের সাথে হ্যাং আউটে মেতে উঠছেন তিনি৷ সেইসব ছবিও দেখা গেছে তার সোশ্যাল মিডিয়াতে৷ রবিবারে দিদি দেবশ্রীর সাথে লাঞ্চ ডেটের ছবির সূত্রও সেই ইনস্টাগ্রাম৷ এদিন কালো টপে ম্যাচ করেছিলেন দিদি—বোন৷ শুভশ্রীর গ্ল্যামারে মুগ্ধ তার অনুরাগী আর ভক্তরা৷